দিনাজপুরে নবনির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

দিনাজপুরে নবনির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ সুইজ হেলভেটাস ইন্টারন্যাশনালের সহায়তায় ও বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ডেমক্রেসি ওয়াচ অপরাজিতা প্রকল্পের আয়োজনে দিনাজপুরে নারীর অংশগ্রহন এবং সেবার মান উন্নয়ন বিষয়ক অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৩ নভেম্বর মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের অফিস কক্ষে নবনির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধি, নেতৃত্ব প্রদান ও আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহনে আগ্রহী নারীদের নিয়ে সেবার মান উন্নয়ন বিষয়ক অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ডেমোক্রেসি ওয়াচ অপরাজিতা প্রকল্পের দিনাজপুর জেলা সমন্বয়কারী মো: কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় নারীদের ক্ষেত্রে সরকারী অফিসে প্রদত্ত বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার চিত্র উপস্থাপন করে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো: আসাদুজ্জামান, কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা মো: রফিকুজ্জামান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: সিরাজুল ইসলাম ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের হিসাব রক্ষক কাম ক্রেডিট সুপারভাইজার মো: আব্দুল মালেক। এছাড়াও উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে বিভিন্ন সমস্যা/সম্ভবনা ও সুযোগ-সুবিধার বিষয়ে আলোকপাত করেন অপরাজিতা নারী প্রকল্পের সদস্য মোছা মেরিনা বেগম,মোছা সাবিনা ইয়াসমিন,মোছা: শরিফা বেগম,ফুলমনি টুডু,মুক্তা বেগম প্রমুখ।

অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় বক্তারা বলেন,বিধবা ভাতা,বয়স্কভাতা,স্বামী পরিত্যক্ত ভাতাসহ এমন ধরনের সুযোগগুলির ক্ষেত্রে এক ব্যক্তি সরকারের দেয়া একাধিক সুযোগ সুবিধা গ্রহন করতে পারবে না। তারা বলেন, কেউ যদি পেনশন পান তবে ওই ব্যক্তি সরকারের এধধরনের আর কোনো সুযোগ নিতে পারবেনা। এমন প্রমান মিললে কিংবা অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির ক্ষেত্রে নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তারা বলেন,অসহায় মানুষদের জন্য সরকার প্রদত্ত সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য আমরা সচ্ছতার সাথে দায়িত্ব পালন করছি। এসময় বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায়ের অপরাজিতারা নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে সরকারী দপ্তরে নিজেদের সমস্যা,সম্ভবনা এবং বিভিন্ন অভিজ্ঞতার আলোকে সমাধান চেয়ে মতামত ব্যক্ত করেন।

অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, দক্ষতা ও উন্নয়নমুলক কর্মকান্ডে নেতৃত্ব প্রদানের লক্ষে নারীরা নিজেদের এলাকায় জনমুখী কর্মকান্ডের সাথে বেশি বেশি সম্পৃক্ত থেকে জনমানুষের কল্যাণে কাজ করলে সেবার মান উন্নয়নে অবদান রাখা সম্ভব। যার ফলে নারী নেতৃত্বের বিকাশ ঘটবে এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সেবা গ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় স্থানীয় বিভিন্ন সরকারী অফিসের কর্মকর্তাসহ অপরাজিতা প্রকল্পের অর্ধ-শতাধিক নারী নেত্রীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অপরাজিতা প্রকল্পের ডেমক্রেসি ওয়াচের সদর উপজেলা সমন্বয়কারী মো: মুশফিকুর রহমান ।