বোনকে হত্যার দায়ে ভাইয়ের ফাঁসি

জাতীয়

নড়াইলের নড়াগাতী থানার কালিনগর গ্রামে বোন ফাতেমা বেগমকে হত্যার দায়ে ভাই রিপন মোল্যাকে (৪৮) ফাঁসি ও ২০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৫ নভেম্বর) সকালে নড়াইলের জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত রিপন মোল্যা জেলার নড়াগাতী থানার কালিনগর গ্রামের মকছেদ মোল্যার ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০১৯ সালের ২৫ নভেম্বর বিকেলে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতী থানার কালিনগর গ্রামে নলিয়া নদীর পাড়ে বোন ফাতেমা বেগম কাপড় পরিস্কার করার সময় ভাই রিপন মোল্যা ফাতেমাকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেয়। এরপর বাঁশ দিয়ে ফাতেমার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম করে এবং পানিতে চুবিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। একপর্যায়ে রিপন তার বোনের মরদেহ পানির নিচে কাঁদায় পুতে রাখে। এই সময় মামলার মূল আসামি রিপনের ছেলে রাশেদ ঘটনাটি দেখে পরিবারকে জানায়। পরে পুলিশ ফাতেমার মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় রিপন মোল্যার পিতা মকছেদ মোল্যা বাদী হয়ে নড়াগাতী থানায় রিপন মোল্যার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় ১৬জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামি রিপন মোল্যার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দণ্ড বিধি ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন আদালত। এসময় আসামি রিপন মোল্যা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।