রাজশাহীতে রেল দিবসের অনুষ্ঠান

রাজশাহী

‘পরিবহনের চাহিদা মেটাতে বর্তমানে রেলওয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এছাড়াও সমন্বিত বহুমাত্রিক যোগাযোগ ব্যবস্থায় বাংলাদেশ রেলওয়ে দেশের টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখতে পারে।’

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের আয়োজনে সোমবার (১৫ নভেম্বর) বেলা ১১ টার দিকে রাজশাহী রেলস্টেশন চত্বরে আয়োজিত ১৫৯ তম রেল দিবস উদ্্যাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্যে দিয়ে গিয়ে এ মন্তব্য করেন অতিথিগণ।

অনুষ্ঠানে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাব্যবস্থাপক অজয় কুমার পোদ্দার, চীফ অপারেটিং এ- সুপারিন্টেন্ডেন্ট শহিদুল ইসলামসহ প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন পযার্য়ের কমকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, তৎকালীন ১৮৬২ সালের ১৫ নভেম্বর এ ভুখন্ডে প্রথম চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থেকে কুষ্টিয়ার জগতি পর্যন্ত ৫৩ কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ চালু হয়। বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে ৪৮টি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।

আর বাংলাদেশ রেলওয়েকে আধুনিক, যুগোপযোগী যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করেছে। যার ধারাবাহিকতায় যমুনা সেতুর পাশেই পৃথক রেলসেতু নির্মাণ করা হচ্ছে। এছাড়াও ইতিমধ্যেই রাজশাহী স্টেশনে আধুনিক অটোমেটিক ট্রেন ওয়াশিং প্ল্যান্ট বসানো হয়েছে। আরও অনেক উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে বলেও সভায় জানিয়েছেন বক্তাগণ।

এর আগে রেল দিবস উদ্্যাপন উপলক্ষ্যে রাজশাহী রেলস্টেশন চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি রেলওয়ে সংলগ্ন বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে একই স্থানে শেষ হয়। এরপর সেখানে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।