স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডায়াবেটিস রোগীদের ইনসুলিন ফ্রি দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতীয়

সরকারি হাসপাতালে ডায়াবেটিস রোগীদের আগামীতে ইনসুলিনও ফ্রি দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, সরকারি হাসপাতালে ডায়াবেটিস রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। আগামীতে ইনসুলিনও ফ্রি দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক গোলটেবিল বৈঠকে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, সবার জানা প্রয়োজন, শহর বা গ্রামের প্রতিটি হাসপাতাল থেকেই এখন বিনামূল্যে ডায়াবেটিস রোগের প্রায় সকল ওষুধ ও চিকিৎসা সেবা বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি খুব দ্রুতই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ব্যয়বহুল চিকিৎসা সামগ্রী ইনসুলিনও বিনামূল্যে দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এর মাধ্যমে সরকারের অন্যান্য জটিল রোগের চিকিৎসা সেবা বিনামূল্যে পাবার পাশাপাশি ডায়াবেটিস রোগের চিকিৎসাও মানুষ ঘরের পাশে থাকা যেকোনো হাসপাতাল বা কমিউনিটি ক্লিনিকেই পাবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, নন কমিউনিকেবল ডিজিসের কারণে দেশের অন্তত ৬১ ভাগ মানুষ কোনো না কোনো স্বাস্থ্য সমস্যায় ভোগেন। নন কমিউনিকেবল অন্যান্য রোগের মধ্যে ডায়াবেটিস রোগ অন্যতম। ডায়াবেটিস রোগটি নীরবে শরীরে চলে আসে।

তিনি বলেন, দেশের প্রান্তিক অঞ্চলের পাশাপাশি শহরের মানুষজনও অনেকেই স্বাস্থ্য বা ডায়াবেটিস নিয়ে তেমন একটা সচেতন নয়। একটি জরিপ থেকে জানা গেছে, দেশের মাত্র ১২ ভাগ মানুষের ডায়াবেটিস এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আবার অনেক মানুষই চিকিৎসার টাকার অভাবে ডায়াবেটিস রোগের চিকিৎসা করাতে হাসপাতালে যান না।

জাহিদ মালেক বলেন, অনেক দেশই এখনো করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছে। রাশিয়ায় দিনে হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে। সে তুলনায় বাংলাদেশ এখন অনেক নিরাপদ অবস্থানে আছে। এর কারণ হলো হাসপাতালে সঠিকভাবে করোনার চিকিৎসা দেওয়া, সরকার কর্তৃক অতি দ্রুত টিকার ব্যবস্থা করা ও সেটি মানুষকে দেওয়া ইত্যাদি।