রাজশাহীতে দেড়শ’ টাকা বিনিয়োগে ৫৪ জনের পুলিশ কনস্টেবলে চাকরি

রাজশাহী

মাত্র দেড়শ’ টাকা বিনিয়োগ করে রাজশাহীতে পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি পেয়েছেন ৫৪ জন। এদের মধ্যে ৪৬ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী রয়েছেন।

মৌখিক পরীক্ষা শেষে সোমবার (৯ নভেম্বর) রাতে তাদের প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত করা হয়েছে। এখন সরকারি খরচে স্বাস্থ্য পরীক্ষায় পাশ করলেই তাদের প্রশিক্ষণের জন্য প্রেরণ করা হবে।

এরপর পেশাদারিত্বের প্রশিক্ষণ শেষে সনদ পেয়ে সকলেই কর্মস্থলে যোগ দেবেন বলে বুধবার (১০ নভেম্বর) বিকেলে নিশ্চিত করেছেন রাজশাহীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম।

তিনি বলেন, ‘পুলিশের নিয়োগ নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে একটা ধারণা ছিলো যে তদবির আর ঘুষ ছাড়া পুলিশে চাকরি মেলে না। কিন্তু এই ধারণা এবার মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।’

পুলিশ কর্মকর্তার মত ঠিক একই কথা বলেছেন এসব চাকরিপ্রার্থীরাও। তাদের ভাষ্য, শুধু নিজের যোগ্যতায় তারা এবার পুলিশে চাকরি পেরেছেন।

জানা গেছে, সারাদেশে প্রায় তিন হাজার কনস্টেবল নিয়োগের জন্য গত সেপ্টেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়। এতে রাজশাহী জেলায় নিয়োগ দেওয়ার কথা ছিলো ৫৪ জন। এরমধ্যে ৪৬ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী।

তবে অনলাইনে আবেদন করেন ৯ হাজার ৬৫৬ জন। পুলিশ সদর দপ্তর চাকরিপ্রার্থীদের আবেদনে দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করে। সোমবার (৯ নভেম্বর) নেওয়া হয় মৌখিক পরীক্ষা।

তারপর রাত ১২টার দিকে সবার উপস্থিতিতেই প্রাথমিকভাবে নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেন। এরপর রাতেই এসপি এবিএম মাসুদ হোসেন নির্বাচিতদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়ার পাশাপাশি মিষ্টিমুখ করান।