ভারতে হাসপাতালে আগুন, চার নবজাতকের মৃত্যু

ভারতে হাসপাতালে আগুন, চার নবজাতকের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে একটি সরকারি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। শিশুদের ওয়ার্ডে আগুন ছড়িয়ে পড়লে চার নবজাতকের মৃত্যু হয়। কান্নার রোল পড়ে হাসপাতালের সামনে।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, শর্ট সার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।

সোমবার রাত ৯টা নাগাদ হাসপাতালে প্রথম ধোঁয়া দেখা যায়। কিছুক্ষণের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য, কমলা নেহরু হাসপাতালের সদ্যোজাত শিশুদের ওয়ার্ডে আগুন ছড়াতে থাকে। হাসপাতাল কর্মীরা দ্রুত সেখান থেকে শিশুদের সরাতে থাকে। কিন্তু তার মধ্যেই তিন নবজাতক আগুনে সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। চিকিৎসার আগেই তাদের মৃত্যু হয়। আরেক নবজাতককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় অন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে তারও মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের সিঁড়িতে বসে মৃত শিশুদের পরিবারের সদস্যদের কাঁদতে দেখা যায়। আগুন লাগার কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছান রাজ্যের মেডিক্যাল এডুকেশন মন্ত্রী বিশ্বাস সারাং। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গেই আমরা উদ্ধার কাজ শুরু করেছিলাম। কিন্তু চারটি শিশুকে বাঁচানো গেলো না। এটা দুঃখজনক। দমকলের প্রাথমিক ধারণা, শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে।’

ঘটনার পর দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, ‘কয়েকটি শিশুকে বাঁচানো গেলো না, এটা দুঃখজনক। মৃত শিশুদের পরিবার পিছু চার লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।’

রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা কমলনাথ এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত দাবি করেছেন। মঙ্গলবার শিবরাজ জানিয়েছেন, অতিরিক্ত মুখ্যসচিব মোহাম্মদ সুলেইমানের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সূত্র: ডিডাব্লিউ।