ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরি ম্যাচে অপ্রীতিকর ঘটনার তদন্তে ফিফা

ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরি ম্যাচে অপ্রীতিকর ঘটনার তদন্তে ফিফা

খেলা

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরির মধ্যকার ম্যাচ চলাকালীন পুলিশ ও সফরকারী দলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে ফিফা। বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থা জানিয়েছে, এরকম ঘৃণ্য আচরণের বিরুদ্ধে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে ১-১ গোলে ড্র ম্যাচটি শুরুর ঠিক পরপরই ঘটনার সুত্রপাত। স্টেডিয়ামে ‘এক স্টুয়ার্ডের উদ্দেশ্যে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগে’ হাঙ্গেরির এক সমর্থককে পুলিশ গ্রেপ্তার করলে ওই উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। প্রায় ৬০০ হাঙ্গেরিয়ান সমর্থক ছিল গ্যালারির সেই অংশে। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় কয়েক ডজন সমর্থক।

এক বিবৃতিতে বুধবার ফিফা জানায়, এই ম্যাচ ছাড়াও একই দিনে তিরানাতে আলবেনিয়া ও পোল্যান্ড ম্যাচের ঘটনাগুলোও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আলবেনিয়ার মাঠে হওয়া ওই ম্যাচে পোল্যান্ডের একমাত্র গোলের পর গ্যালারি থেকে মাঠে বোতল ছুঁড়ে মারা হয়েছিল।

“ফিফা করণীয় ঠিক করতে গত রাতের (মঙ্গলবার) বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচগুলোর প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করছে।”

“ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরি এবং আলবেনিয়া ও পোল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচে ঘটে যাওয়া ঘটনার তীব্র নিন্দা জানায় ফিফা। যে কোনো ধরনের সহিংসতার পাশাপাশি কোনোরকম বৈষম্য আচরণ দূরীকরণে এই সংস্থা তার অবস্থানে অটল ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ফুটবলে এই ধরনের ঘৃণ্য আচরণের বিরুদ্ধে ফিফার ‘জিরো-টলারেন্স’ নীতি স্পষ্ট।”