অবশেষে সবার জন্য খুললো ঢাবির হল

অবশেষে সবার জন্য খুললো ঢাবির হল

জাতীয়

সকল বর্ষের শিক্ষার্থীর জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। রোববার (১০ অক্টোবর) সকাল ৮টায় দীর্ঘ ১৮ মাস পর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে শিক্ষার্থীদের ওঠার অনুমতি দেয়া হয়। বরাবরের মতোই শিক্ষার্থীদের ফুল, মাস্ক ও চকলেট দিয়ে বরণ করে নেন প্রতি হলের কর্তৃপক্ষ ও আবাসিক শিক্ষকরা। কমপক্ষে এক ডোজ টিকা নেয়ার শর্তে সকল বর্ষের শিক্ষার্থীরা তাদের হলের বৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে হলে উঠছেন।

স্নাতক প্রথম বর্ষ, দ্বিতীয় বর্ষ ও তৃতীয় বর্ষ ব্যতীত বাকিদের জন্য হল খোলা হয়েছিল গত ৫ অক্টোবর। তবে নিয়মশৃঙ্খলা ভঙ্গ করে সব হলেই কমবেশি সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা অবস্থান করত। ছাত্রসংগঠন গুলোর দাবির মুখে অবশেষে সবার জন্য হল খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তারই ধারাবাহিকতায় সবাইকে বৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে হলে উঠার অনুমতি দেয়া হচ্ছে।

অবশেষে সবার জন্য খুললো ঢাবির হল

এদিকে দেড় বছর পর হলে ফিরতে পেরে খুশি শিক্ষার্থীরা। অনেকে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হলে ফিরে ছবি আপলোড করে আবেগঘন ক্যাপশন জুড়ে দিচ্ছেন। কেউ হলকে দ্বিতীয় বাড়ি আবার কেউ আপন আলয় হিসেবে উল্লেখ করছেন। হলে ওঠা অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, সেই দীর্ঘ দেড় বছর পর হলে ফিরে আসলাম। এত দিন বাড়িতে সবচেয়ে বাজে সময় পার করতে হয়েছে। হলে ফিরতে পেরে কেমন যেন একটু প্রশান্তি কাজ করছে। মনে হচ্ছে কি যেন একটা পেয়ে গেলাম।

তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শহীদুল ইসলাম বলেন, এত দিন যদিও বাড়িতে মা-বাবার সাথে ছিলাম কিন্তু বন্ধু বান্ধবদের অনেক মিস করেছি। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গায় আড্ডা দেয়া, লাইব্রেরিতে পড়াশোনা করা সবকিছুই মিস করেছি অনেক। এখন আবার এসব করতে পারবো ভেবে ভালো লাগছে।

উল্লেখ্য, একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ৫ অক্টোবর অনার্স ফাইনাল ইয়ার ও মাস্টার্স এবং আজ থেকে সবার জন্য হল খুলে দেয়া হয়। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে একই শর্তে প্রতিটি বিভাগে ক্লাস শুরু হওয়ার কথাও রয়েছে।