বৃহত্তর দিনাজপুরের সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা ভারতীনন্দী সরকার আর নেই

বৃহত্তর দিনাজপুরের সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা ভারতীনন্দী সরকার আর নেই

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বঙ্গবন্ধু আদর্শের নিবেদিত প্রাণ ও দূর্দিনের পরীক্ষিত সহকর্মী, বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ সভাপতি, দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম নেত্রী, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি, বৃহত্তর দিনাজপুরের সাবেক এমপি এবং বীরমুক্তিযোদ্ধা শ্রীমতি ভারতীনন্দী সরকার আর নেই।

বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ২টায় তিনি দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। নানান জটিল রোগে দীর্ঘদিন যাবত ভুগছিলেন তিনি। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি প্রয়াতনেতা স্বর্গীয় মিহির কুমার সরকারের সহধর্মিনী ছিলেন।

আজ শুক্রবার দুপুর ১টায় গার্ড অব অনার শেষে দিনাজপুরের কেন্দ্রীয় ফুলতলা শ্বশানে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

সাবেক এমপির মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইমাম চৌধুরী, শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রায়হান কবির সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এসএম খালেকুজ্জামান রাজু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদ সরকার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মমিনুল ইসলামসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন ও ব্যক্তিবর্গ শোক প্রকাশ করেছেন। সেই সাথে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

সাবেক মহিলা এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা শ্রীমতি ভারতী নন্দী সরকার পরলোক গমন করায় ৮ অক্টোবর ২০২১ শুক্রবার ফুলতলা শ্মশান ঘাটে তার মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করছেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল।

ভারতী নন্দী সরকার-এর রাজনৈতিক জীবনঃ ১৯৯৬-২০০১ সালে বৃহত্তর দিনাজপুরের সাবেক সদস্য। এর আগে ১৯৭৪-১৯৭৮ সালে দিনাজপুর পৌরসভার প্রথম সাবেক মহিলা কমিশনার ছিলেন। ৭৫-এর পরে প্রায় ২২/২৩ বছর দিনাজপুর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বাংলাদেশ কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি ও বর্তমান উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য। তিনি ২০০১ সালের পরে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সম্পাদকসহ কেন্দ্রীয় যুবলীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন পদেও তিনি কাজ করেছেন। বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠা থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রেসিডিয়াম মেম্মার ছিলেন। এ ছাড়াও তিনি দিনাজপুর সেন্ট যোসেফস স্কুলের সাবেক শিক্ষক ছিলেন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন তার পুত্র শেখর কুমার সরকার।