হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে কাঁচা মরিচের আমদানি

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে কাঁচা মরিচের আমদানি

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দেশের বাজারে চাহিদা থাকায় ভারত থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়েয় বেড়েছে কাঁচা মরিচের আমদানি। আমদানি বাড়লেও পাইকারী ও খুচরা বাজারে কমছে না পণ্যটির দাম। তবে কাঁচা মরিচের আমদানি স্বাভাবিক থাকায় দাম কমে আসবে বলে আশা ব্যবসায়ীদের। দেশে কাঁচার মরিচের উৎপাদন নষ্ট হওয়ায় বাজারে কমেছে সরবরাহ সেই সাথে বেড়েছে পণ্যটির দাম। পণ্যটির দাম ক্রেতার নাগালে রাখতে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চলছে ভারত থেকে কাঁচা মরিচের আমদানি।

এই বন্দর দিয়ে কাঁচা মরিচের আমদানি বাড়লেও বাজারে কমছে না পণ্যটির দাম। পাইকারী ও স্থানীয় খুচরা বাজারে আমদানিকৃত কাঁচা মরিচ প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে। আমদানি বাড়লেও দাম না কমায় কিছুটা বিপাকে পড়তে হচ্ছে সাধারণ ক্রেতাদের। এদিকে আমদানিকৃত এসব কাঁচা মরিচ সরবরাহ করা হচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। আমদানি বাড়ায় বেড়েছে পাইকার-পত্র সেই সাথে বেড়েছে বেচা-কেনাও বলে জানান স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

এদিকে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ আমদানিতে শুল্ক গুনতে হচ্ছে ২১ টাকা। আর কিছু দিনের মধ্যে বাজার স্বাভাবিক হয়ে আসবে বলে জানান এই আমদানিকারক।

হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে,গেলো মাসের ২৫ই সেপ্টেম্বর হিলি স্থলবন্দর দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানির শুরুর পর থেকে গেলো ৯ কর্ম দিবসে ভারতীয় ৪৯ ট্রাকে ৩শ ৬১ মেট্রিক টন কাঁচা মরিচ আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে।

হিলি স্থলবন্দরের কাঁচা মরিচ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি মোরশেদ আলী জানান, হিলি বন্দরে কাঁচা মরিচের আমদানি পর্যাপ্ত পরিমাণে আছে। পাইকার-পত্রও ভালো আসতিছে আমরা কাঁচা মরিচ গুলো বিক্রি করতেছি ১০০ থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে। আমাদের এই বন্দরে প্রতিদিন ১০ থেকে ১২টি করে কাঁচা মরিচ বোঝাই ট্রাক আমদানি হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দরের কাঁচা মরিচ কিনতে আসা সবুজ নামের এক পাইকার বলেন,হিলি বন্দরে ভারত থেকে এসব মরিচ আমদানি হচ্ছে আগে কম আমদানি হতো এখন বেশি হচ্ছে। ঢাকা,চট্ট্রগাম সহ বিভিন্ন জায়গায় মরিচের ব্যাপক চাহিদা আমরা এসব মরিচ এখান থেকে কিনে বিভিন্ন আড়ত পাঠাচ্ছি।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন বলেন, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ইতোমধ্যে কাঁচা মরিচ আমদানি করা শুরু হয়েছে। মাঝখানে কাঁচা মরিচের আমদানি বন্ধ ছিলো কারণ দেশের বাজারে মরিচের পর্যাপ্ত সরবরাহ ছিলো। তবে আবারো দেশের বিভিন্ন স্থানে কাঁচা মরিচে আবাদ নষ্ট হওয়ায় সরবরাহটা কমে গিয়ে দাম বেড়েছে। বাজারে দাম স্বাভাবিক রাখতে আমরা প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ ২১ টাকা শুল্ক দিয়ে ভারত থেকে আমদানি করছি।আশা করছি খুব দ্রুত বাজারে পণ্যটির দাম কমে আসবে বলেও জানান তিনি।

ছবিঃ সময়সংবাদ