দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ সড়কের প্রশস্তকরণের কাজ চলমান

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের দূরত্ব ১০৬ কিলোমিটার। সড়ক সংলগ্ন দুটি কয়লাখনি, একটি পাথরখনি, একটি লোহারখনি, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং দুটি স্থলবন্দর রয়েছে। চলমান সড়কটি নিমিত হলে উত্তরাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ সার্বিক উন্নয়নের বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে। বর্তমানে ৮৮৩ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কের ৯ দশমিক ৭ মিটার প্রশস্তকরণের কাজ চলমান রয়েছে।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হারুন উর রশিদ বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় উত্তরাঞ্চলের উন্নয়ন হচ্ছে।

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দরের ৯৯ শতাংশ পণ্যবাহী যানবাহন সড়কটি ব্যবহার করে। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় যানজটের কারণে স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি বাণিজ্য ব্যাহত হয়। এর ওপর সম্প্রতি চালু হয়েছে বিরল স্থলবন্দর। চালুর অপেক্ষায় নবাবগঞ্জের দীঘিপাড়া কয়লাখনি। তাই এই অঞ্চলের উন্নয়নে সড়কটি বিকল্প নেই।’

‘ফুলবাড়ী কয়লাখনি, বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং মধ্যপাড়া পাথরখনি এসব খনির প্রায় যানবাহন দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে থাকে।

দিনাজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক দিয়ে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় যেতে দুই ঘণ্টা বেশি সময় এবং ৫০ কিলোমিটার বেশি সড়ক অতিক্রম করতে হয়। সেখানে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ সড়ক দিয়ে ৫০ কিলোমিটার কম দূরত্বে ও দুই ঘণ্টা কমে তিন জেলায় যাতায়াত করা যাবে।

ছবিঃ সংগ্রহিত