রাজশাহীর বাগমারায় বারনই নদীতে অভিযান, অবৈধ সুতিজাল উচ্ছেদ

রাজশাহীর বাগমারায় বারনই নদীতে অভিযান, অবৈধ সুতিজাল উচ্ছেদ

রাজশাহী

রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলা মৎস্য দপ্তরের উদ্যোগে অবৈধ সুতিজাল উচ্ছেদ করা হয়েছে। উপজেলার মাদারীগঞ্জ এলাকার বারনই নদীতে অবৈধভাবে সুতিজাল দিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ শিকার করে আসছিল মুন্টু হালদার।

রোববার দুপুরে বারনই নদীতে উচ্ছেদ উভিযান চালাই মৎস্য কর্মকর্তা। এ সময় সুতিজাল উচ্ছেদ করে তা ঘটনাস্থলে জনসম্মুখে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। প্রায় ২০ দিন আগে জোরপূর্বক বারনই নদীতে সুতিজাল দিয়ে মাছ শিকার শুরু করেন মুন্টু হালদার। মৎস্য আইন অমান্য করে সকল মাছ নিধন করে আসছিলেন তিনি।

স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করেন কর্মকর্তা কর্মকর্তা। সুতি জালের কারণে ওই নদী দিয়ে কোন মাছ বের হওয়ার সুযোগ পেত না। যে মাছই নদীতে চলচল করুক না কেন ওই সুতিজালের মধ্যে দিয়েই যেতে হতো। সুতি জালের ভিতরে কোন মাছ প্রবেশ করলে সে আর বের হওয়ার সুযোগ পেত না। উচ্ছেদকালে স্থানীয় মৎস্য সম্প্রসারণ প্রতিনিধি শাহাজানা আলী উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রবিউল করিম জানান, কোন নদীতে অবৈধভাবে সুতিজাল দিয়ে মাছ শিকার করা যাবে না। এটি আইনগ দন্ডনীয় অপরাধ। নদীতে যারাই সুতিজাল দিয়ে মাছ শিকারের চেষ্টা করুক না কেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সুতিজাল উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। আগামীতে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।