সৌর সেচ পাম্পে সাশ্রয় হবে বিদ্যুৎ: অব্যবহৃত বিদ্যুত কিনবে জাতীয় গ্রিড

রাজশাহী

কৃষক পর্যায়ে প্রতি দুই হাজার সৌর বিদ্যুৎ চালিত সেচ পাম্পের ব্যবহারে ১৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সাশ্রয় হবে। এ কারণে সরকার ৬৫ শতাংশ ভর্তুকি মূল্যে গ্রাহক পর্যায়ে সৌর বিদ্যুৎ চালিত সেচ পাম্প সরবরাহ করছে।

এখান থেকে চাষীরা সেচ চাহিদা মিটিয়ে বর্ষা মৌসুমে সেচ কাজ বন্ধ থাকা অবস্থায় উৎপাদিত বিদ্যুৎ প্রতি ইউনিট ৪.৩৬ টাকা হারে জাতীয় গ্রিডে বিক্রি করে লাভবান হতে পারবেন।

রোববার বিকালে বড়াইগ্রামের জোনাইল বাজারে নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর উদ্যোগে আয়োজিত ‘সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে কৃষি সেচ প্রকল্প’ শীর্ষক উদ্বুদ্ধ করণ সভায় এসব তথ্য জানান বক্তারা।

সভায় টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতান বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অব:)। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মহিউদ্দিন।

জোনাইল ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বিদ্যুতায়ন বোর্ড নাটোরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: শাখাওয়াত হোসেন, নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জিএম মো: মোমীনুল ইসলাম, ডিজিএম মো: আবদুর রশিদ, এজিএম ওয়াদুদ হোসেন, এজিএম (সদস্য সেবা) মোকলেছুর রহমান ও জোনাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন। সভায় সৌর বিদ্যুৎ চালিত সেচ পাম্প দেয়ার জন্য ১২ জন গ্রাহক নির্বাচন করা হয়।