ধারণার চেয়ে বেশি বিপজ্জনক বায়ু দূষণ: ডব্লিউএইচও

আন্তর্জাতিক

বাতাসের মান নিরাপদ মাত্রার চেয়ে বেড়েছেবাতাসের মান নিরাপদ মাত্রার চেয়ে বেড়েছে

বায়ু দূষণকে যতটা ভয়াবহ মনে করা হতো, এটা তার চেয়েও মারাত্মক বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। একই সঙ্গে বাতাসে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইডের মতো মূল দূষিত পদার্থগুলোর সর্বোচ্চ নিরাপদ মাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছে সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচও’র ধারণা প্রতিবছর ৭০ লাখ মানুষের আগাম মৃত্যুর সঙ্গে বায়ু দূষণের সম্পর্ক রয়েছে। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হলো নিম্ন এবং মধ্য আয়ের দেশ। কারণ এসব দেশ অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর নির্ভর করে।

ডব্লিউএইচও বলছে ধূমপান এবং অস্বাস্থ্যকর খাবারের মতোই বিপজ্জনক বায়ু দূষণ। সংস্থাটি ১৯৪টি সদস্য দেশকে কার্বন নিঃসরণ কমাতে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, বায়ু দূষণের মাত্রা কমিয়ে আনতে পারলে এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মৃত্যুর ঘটনা ৮০ শতাংশ কমিয়ে আনা যেতে পারে।

বায়ু দূষণের সঙ্গে হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের সম্পর্ক রয়েছে। আর শিশুদের ক্ষেত্রে এর কারণে ফুসফুসের বৃদ্ধি কমে যেতে পারে আর অ্যাজমার সমস্যার বাড়তে পারে।

ডব্লিউএইচও বলেছে, ‘বাতাসের মানের উন্নয়ন ঘটানো গেলে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার কাজেও গতি আসতে পারে, কারণ কার্বন নিঃসরণ কমলে বাতাসের মান বাড়বে।’