১৮ মাস পর প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে দিনাজপুরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোতে

১৮ মাস পর প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে দিনাজপুরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোতে

দিনাজপুর

ডেক্স রিপোর্টঃ ঢং ঢং করে বাজলো ঘণ্টাধ্বনি। সবাই ঢুকলো শ্রেণিকক্ষে। কোভিট-১৯ প্রাদূর্ভাবের কারণে দীর্ঘ ১৮ মাস দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর গত রবিার বিদ্যালয়ে খুললে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি লক্ষ করার মতো।

তারা বিদ্যালয়ের আসবে বলে অনেকেই পুরোন ড্রেস বাদ দিয়ে নতুন ড্রেন পরে বিদ্যালয়ে আসে। সেখানে তাদের বন্ধু বান্ধবকে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হয়ে যায়। তবে সময়ের সল্পতার কারনে সবাই স্কুল ড্রেস জুতা সময় মত সংগ্রহ করতে পারেনি।

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় ময়লা-আবর্জনায় পরিনত হয়েছিলো বিদ্যালযের চারপাশ। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শ্রেনী কক্ষসহ সবকিছু পরিস্কার করে আজ থেকে পাঠদানে ফিরেছে উপজেলা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

শিক্ষার্থীরা জানায় আমরা পুরাতন সকল পরিচিত মুখ দেখে আনন্দিত হয়েছি। কিছুটা স্বস্তি নিয়ে আবারও লেখা পড়ায় মনোযোগী হতে যাচ্ছি ভাবতেই ভালো লাগছে।

প্রথম দিনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন পর স্কুলে আসতে পেরে অনেকে খুশি প্রকাশ করেছে।

অভিভাবকেরা জানান, দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকায় ঘরে থেকে পড়াশোনায় কিছুটা অমনোযোগী ছিলেন তাঁদের সন্তানরা। স্কুল খোলার খবরে তাদের সন্তানেরা আবারও লেখাপড়ায় আগ্রহী হয়ে উঠছেন। তবে করোনা পরিস্থিতি এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ না হওয়ায় কিছুটা হলেও তারা শঙ্কিত বলে জানান।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা অনুযায়ী পঞ্চম শ্রেণী, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সপ্তাহে ৬ দিন অন্যান্য শ্রেণীর একদিন করে ক্লাস হবে। দীর্ঘদিন পর স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।

ফটো ক্রেডিটঃ সাহেব আলি

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য