২০২৭ সালের মধ্যে দিনাজপুর থেকে বুলেট ট্রেন চলাচল করবেঃ হুইপ

২০২৭ সালের মধ্যে দিনাজপুর থেকে বুলেট ট্রেন চলাচল করবেঃ হুইপ

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালু রহিম এমপি বলেছেন, আগামী ২০২৭ সালের মধ্যে দিনাজপুর থেকে বুলেট ট্রেন চলাচল করবে। এতে দিনাজপুরসহ উত্তরবঙ্গের মানুষের জীবনযাত্রার মান আরও বেড়ে যাবে।

তিনি বলেন, দিনাজপুর সদর উপজেলা ও শহর হচ্ছে জেলার হৃৎপিন্ড। এর উন্নয়নে এডিবির অর্থায়নে শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা, ড্রেন তৈরীসহ লাইট স্থাপনে ৭০ কোটি টাকার কাজ প্রাথমিকভাবে হবে। এইসব কাজ পৌরসভার মাধ্যমে নয়, পুরোটাই এলজিইডির অধীনে সম্পন্ন করা হবে বলে।

তিনি আরও বলেন, এই দিনাজপুরের উন্নয়ন হোক সকলেই চায়। এখন দিনাজপুর থেকে চাল বিশ্বের অনেক দেশে রপ্তাণী হচ্ছে। এরোমেটিক রাইস বা কাঠারীভোগ চাল বিদেশে রপ্তাণী করে দিনাজপুরকে ব্র্যান্ডিং করছেন চাল ব্যবসায়ীরা। এছাড়াও পাপড় ইন্ডাস্ট্রি স্থাপন করে পুনরায় এই শিল্প বিশ্বে ব্র্যান্ডিংএর মর্যাদা পাবে।

ইকবালুর রহিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাল উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য দিনাজপুর সদর উপজেলার মোহনপুরে রাবার ড্যাম তৈরী করেছেন। এতে শুষ্ক মৌসুমে পানি আটকে থাকায় ধান উৎপাদন অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও শেখ হাসিনার সরকারের আমলে দেশের মানুষের আর্থিক অবস্থার উন্নয়ন হয়েছে। জীবনযাত্রার মান অনেক উন্নতি হয়েছে। তিনি বলেন, গত ১২ বছরে সদর উপজেলার ৯০ হাজার বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ দিয়েছি। দিনাজপুরে আমরা এখন ২৪ ঘন্টা বিদ্যুত সংযোগ রাখতে সক্ষম হয়েছি।

হুইপ বলেন, দিনাজপুর পৌরসভায় টাকা দেওয়ার পরও মেয়র সাহেব কাজ করছেন না। টাকা দেওয়ার পরও যদি শহরের ড্রেন পরিস্কার করতে হয় আমাকে, তাহলে কেমন দেখায়। পৌর এলাকার উন্নয়নে ২৫ কোটি টাকা পৌরসভা থেকে ফেরত নিয়ে গেছে ওয়ার্ল্ড ব্যাংক।

চেম্বার ভবন মিলনায়তনে দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি আয়োজিত “দিনাজপুরের উন্নয়ন ভাবনা” শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি এসব কথা বলেন।

দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী শামিম এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বিপিএম, পিপিএম (বার)। এর আগে চেম্বারের পরিচালক শামীম কবির এর সঞ্চালনায় মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন চাউল কল মালিক গ্রুপের সভাপতি মোছাদ্দেক হুসেন, বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি ভবাণী শংকর আগরওয়ালা, চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জুলফিকার আলী স্বপন, দোকান মালিক সমিতির সভাপতি জহির শাহ, রেস্তোরা ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি শ্যামল ঘোস, ক্যাবল অপারেটর মালিক পলাশ প্রমুখ।

মুক্ত আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শরিফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শচীন চাকমা, সুজন সরকার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইমদাদ সরকার, হাকিমপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত মজুমদার ডলার, সাবেক সভাপতি চিত্ত ঘোষ, কোতয়ালী থানার ওসি মোজাফফর হোসেন, চেম্বারের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম, বর্তমান সিনিয়র সহ সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন চৌধুরী পাপ্পু, সহ সভাপতি জর্জিস আনামসহ সকল পরিচালক, সাধারণ সদস্য ও দিনাজপুরের সর্বস্তরের ব্যবসায়ীরা।

আলোচনার শুরুতে চেম্বারের নব নির্বাচিত কমিটির পক্ষ থেকে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দকে সন্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন চেম্বারের নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য