গোশতের টুকরায় আরবি অক্ষরে লেখা ‘আল্লাহ’

গোশতের টুকরায় আরবি অক্ষরে লেখা ‘আল্লাহ’

রাজশাহী

কুরবানির গোশত রান্না করার প্রস্তুতির সময় গৃহবধূ দেখেন একটি খন্ড বার বার ভেসে উঠছিল। রান্নার পর তিনি খেয়াল করে দেখেন গোশত খণ্ডে ‘আল্লাহ’ লেখা। পরে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এসে এতে আরবিতে ‘আল্লাহ’ শব্দটি দেখেন।

শনিবার বিকেলে পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউপির বোথর উত্তরপাড়া গ্রামে তায়জুল ইসলামের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

গৃহকর্তা তাইজুল ইসলাম জানান, প্রতিবারের মতো এবারও তিনি একটি গরু ভাগে কুরবানি দিয়েছিলেন। কুরবানির গরুর গোশত রান্না করতে যান তার স্ত্রী নার্গিস খাতুন। গোশত রান্না করার সময় একটি টুকরা বার বার ভেসে ওঠে। এভাবে রান্নাও শেষ হয়। এতে কৌতূহলী হন নার্গিস খাতুন। এরপর তিনি দেখেন গোশতের টুকরায় আরবি অক্ষরে লেখা রয়েছে, ‘আল্লাহ’।

বিষয়টি আরো নিশ্চিত হওয়ার জন্য স্থানীয় আলেমদের দেখালে তারাও ‘আল্লাহ’ লেখা আছে বলে নিশ্চিত করেন। দ্রুতই এই খবর ছড়িয়ে পড়ে। আশপাশের লোকজন ‘আল্লাহ’ লেখা গোশতের টুকরাটি দেখতে ভিড় করেন তাইজুল ইসলামের বাড়িতে।

গৃহবধূ নার্গিস খাতুন জানান, তিনি মশলা মাখিয়ে গোশত রান্না করতে যান। এ সময় বার বার ওপরে উঠে আসছিল একটি গোশতের টুকরা। ওই খণ্ডটি ডুবছিল না। যথারীতি রান্না শেষ করেন তিনি। রান্না গোশত শেষে একটি পাত্রে রাখেন। এ সময় একটি খণ্ড নিচে পড়ে যায়। তখন দেখেন এর উপরে ‘আল্লাহ’ লেখা।

তিনি জানান, এমন ঘটনা আগে মানুষের মুখে শুনেছেন। কিন্তু এমন দৃশ্য নিজে এই প্রথম দেখলেন। ওই গোশতের টুকরাটি সংরক্ষণ করে রেখেছেন বলে জানান তিনি।

পাবনার চাঁপাবিবি মসজিদ কমপ্লেক্সের পেশ ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা সিবগাতুল্লাহ বলেন, আল্লাহপাক বিভিন্ন মাধ্যমে তার কুদরত দেখান। এটি তারই একটা নমুনা হতে পারে।