বিরামপুর পৌরসভায় সাড়ে ৪ হাজার দুস্থ অসহায় পরিবারের মাঝে ভিজিএফ চাল বিতরণ

বিরামপুর পৌরসভায় সাড়ে ৪ হাজার দুস্থ অসহায় পরিবারের মাঝে ভিজিএফ চাল বিতরণ

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের বিরামপুরে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে গরীব,দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফ (চাল) বিতরণ করা হয়েছে।

১৯ জুলাই সোমবার সকাল ১১টার বিরামপুর পৌরসভা চত্তরে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফ (চাল) বিতরণ ও পৌর শহর এলাকায় ডাস্টবিন স্থাপনের উদ্বোধন করেন, প্রধান অতিথি দিনাজপুর-৬ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য (এমপি) শিবলী সাদিক।

এসময় তার সাথে ছিলেন,বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খায়রুল আলম রাজু, পৌর মেয়র আককাস আলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত, দপ্তর সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন,বিরামপুর মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ মেসবাউল হক, দিনাজপুর সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাষ্টের সভাপতি আকরাম হোসেন,বিরামপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহিনুর আলম ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মশিহুর রহমান,পৌর সচিব সেরাফুল ইসলাম,পৌর পরিষদের কাউন্সিলরবৃন্দ, বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধান অতিথি (এমপি) শিবলী সাদিক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের কল্যাণে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। করোনার এই মহামারীতে দেশের মানুষকে সুস্থ ও রক্ষা করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। তিনি আরো বলেন,দিনাজপুর-৬ আসনে গরীব,দুঃস্থ অসহায় খেটে খাওয়া মানুষদের কারো যদি খাদ্যসামগ্রীর প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফোন করবেন তাৎক্ষনিক আমি তাদের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়া ব্যবস্থা করবো।

পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আক্কাস আলী জানান- পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে গরীব দুঃখী অসহায় দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফ (চাল) পৌরসভার ১ থেকে ৯ টি ওয়ার্ডের ৪ হাজার ৬শ ২১জনকে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আর দুইদিন পরেই পালিত হতে যাচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ইদুল আযহা এ লক্ষে আজ পৌর শহর এলাকায় বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে ১শ টি ডাস্টবিন স্থাপন করা হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সবখানে ডাস্টবিন স্থাপন করা হবে। ইদুল আযহায় কুরবানিকৃত পশুর বর্জ্য ও উচ্ছিষ্টাংশ যেখানে সেখানে না ফেলে নিদিষ্ট স্থানে রাখা ডাস্টবিনে রাখার পৌরবাসীকে অনুরোধ জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য