মোবাইল কিনে না দেওয়ায় বিষপানে স্কুল শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

রাজশাহী

রাজশাহীর দুর্গাপুরে মোবাইল কিনে না দেওয়ায় বিষপানে আত্মহত্যা করেছে এক স্কুল শিক্ষার্থী।

ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুর পৌর এলাকার গোড়খাই গ্রামে। এলাকায় শোকের ছাঁয়া নেমে এসেছে। এ ঘটনায় রাজপাড়া থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।

পারিবারিক সুত্র জানাযায়, দুর্গাপুর পৌর এলাকার গোড়খাই গ্রামের রফিকুল ইসলাম রফিকের পুত্র ও দুর্গাপুর সরকারী পাইলট মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্র হৃদয় আহম্মেদ আওয়াল(১৪) পিতার নিকট মোবাইল ফোন কিনে নেওয়ার বায়না ধরে।

সামনে কোরবানি ঈদ টাকা পয়সা লাগবে তাই ঈদের পর মোবাইল কিনে দেওয়ার কথা পিতা ছেলে আওয়ালকে জানায়। এতে ক্ষোভে দূঃখে গত ২৭ জুন সবার অজান্তে ঘাস পোড়ানো (গ্রামাক্সিন) বিষপান করে এভাবে দুইদিন পার হয়ে যায় ২৯ জুন সকালে শাররীক অবস্থা খারাপ হয়ে যাচ্ছে বুজতে পেরে তার মাকে জানায় সে দুইদিন পূর্বে বিষপান করেছে। মূহুর্তের বিষয়টি নিয়ে পরিবারে কান্নাকাটি সৃষ্টি হয়। পরে তাকে প্রথমে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হয়।

দীর্ঘ দিন ধরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ১৭ জুলাই শনিবার দুপুর আনুমনিক ১২টার দিকে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নগরীর রাজপাড়া থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। ১৭ জুলাই শনিবার সন্ধা ৬টায় নিজ বাড়ীতে জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন সর্ম্পূন হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য