অলিম্পিক ভিলেজে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত

অলিম্পিক ভিলেজে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত

খেলা

সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে টোকিও অলিম্পিকে করোনাভাইরাসের আতঙ্ক বেড়েই চলেছে। শনিবার আয়োজকদের পক্ষ থেকে অ্যাথলেটদের ভিলেজে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি জানানো হয়েছে। আসর শুরুর এক সপ্তাহের কম সময়ের আগে যা প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছে একটি নিরাপদ অলিম্পিকের প্রতিশ্রুতিকে।

তবে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি অ্যাথলেট নন বলে জানিয়েছে আয়োজকরা। অলিম্পিকে কাজ করতে অন্য দেশ থেকে এসেছিলেন তিনি। শুক্রবার নিয়মিত পরীক্ষায় তার শরীরে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস শনাক্ত হয়। তবে, আক্রান্ত ব্যক্তির জাতীয়তা উল্লেখ করা হয়নি।

গেমসের সঙ্গে সম্পৃক্ত আরো ১৪ জনের শরীরে শনিবার করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে আছেন গণমাধ্যমের দুজন, ঠিকাদার সাতজন এবং গেমসের কর্মী পাঁচজন।

করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিক মাঠে গড়াবে আগামী ২৩ জুলাই। আগামী ৮ অগাস্ট পর্দা নামবে বৈশ্বিক ক্রীড়াযজ্ঞের সর্ববৃহৎ আসরের। প্রায় দর্শকবিহীন ভাবেই গড়াবে এবারের আসর। ইতোমধ্যে জাপানে আসতে শুরু করেছেন বিভিন্ন দেশের অ্যাথলেটরা।

বৈশ্বিক মহামারীকালে অলিম্পিকের মতো একটি বৃহৎ আসরের আয়োজন চিন্তায় ফেলে দিয়েছে স্বাগতিক দেশের নাগরিকদের। তাদের আশঙ্কা, বিদেশিদের ক্রমাগত যাতায়াতের ফলে ভাইরাস দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়তে পারে, যা চাপের মুখে থাকা দেশটির চিকিৎসা ব্যবস্থাকে নাজুক পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিতে পারে।

সামগ্রিকভাবে জাপানে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অন্যান্য দেশের তুলনায় খারাপ না হলেও দেশটিতে এখন পর্যন্ত আট লক্ষের বেশি মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এবং প্রাণ হারিয়েছেন পনের হাজার মানুষ।

সাম্প্রতিক সময়ে নতুন করে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে গেছে আয়োজক শহর টোকিওতে। শহরটিতে গত চার দিন ধরে টানা এক হাজারের বেশি মানুষ কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন।

জাপানে মোট জনসংখ্যার মাত্র ২০% টিকার আওতায় এসেছেন।

এখন পর্যন্ত গেমসের সঙ্গে সম্পৃক্ত ৪০ জনের বেশি এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন, যার মধ্যে রয়েছেন জাপানিজ ও বিদেশি নাগরিকরাও।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য