জার্মানিতে বন্যায় ১৫৭ জনের মৃত্যু

জার্মানিতে বন্যায় ১৫৭ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক

জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলে বন্যায় অন্তত ১৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং এখনও কয়েকশ লোক নিখোঁজ রয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

শনিবার পুলিশের করা এক হিসাব অনুযায়ী, এর মধ্যে কেবল জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলেই প্রাণহানির সংখ্যা প্রায় ১৩৩। অন্যদিকে, বেলজিয়ামে এ সংখ্যাটা অন্তত ২৪ জন।

দেশটিতে অর্ধ শতাব্দির মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ এ প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে বহু শহরে বন্যার পানি এখনও অনেক উপর দিয়ে বইছে ও ঘরবাড়ি ভেঙে পড়া অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলের বন্যাকবলিত ওই এলাকাগুলোতে জীবিতদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছেন উদ্ধার কর্মীরা।

কলোনের নিকটবর্তী বাসেনবার্গ শহরে একটি বাঁধ ভেঙে যাওয়ার পর শুক্রবার রাতে স্থানীয় প্রায় ৭০০ বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

বন্যায় রিনেল্যান্ড পালাটিনাটে এবং নথস রিনে-ভেসপালিয়া রাজ্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত বেশ কয়েকদিন ধরে পুরো অঞ্চলের জনবসতিগুলো বিদ্যুৎবিহীন ও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে।

বন্যায় প্রতিবেশী বেলজিয়াম ও নেদারল্যান্ডের কিছু অংশও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বেলজিয়ামে অন্তত ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জার্মানির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ভল্টার স্টাইনমায়ার ও নথস রিনে-ভেসপালিয়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আর্মিন লাশেতের শনিবার অন্যতম ক্ষতিগ্রস্ত শহর এফস্ট্যাড পরিদর্শনের কথা।

সেপ্টেম্বরে জার্মানিতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই বন্যার ধ্বংসযজ্ঞ ভোটের আগে দেশটিতে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বিতর্ককে তীব্র করে তুলতে পারে।

বিজ্ঞানীরা অনেকদিন ধরে বলে আসছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে অস্বাভাবিক ভারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। কিন্তু জার্মানির এই নিরলস বর্ষণের ক্ষেত্রে জলবায়ু পরিবর্তনের ভূমিকা নির্ধারণ করতে গবেষণায় অন্তত কয়েক সপ্তাহ লেগে যেতে পারে বলে শুক্রবার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য