রংপুরে ৫বছরের শিশু ধর্ষনকারি গ্রেফতার

রংপুরে ৫বছরের শিশু ধর্ষনকারি গ্রেফতার

রংপুর

মায়ের কোল থেকে বেড়ানোর কথা বলে নিয়ে গিয়ে পাঁচ বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণ করেছে কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থী শ্রী সাগর মহন্ত। এঘটনার পর সাঁড়াশী অভিযান চালিয়ে ধর্ষক শ্রী সাগর মহন্তকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি সদর থানা পুলিশ। অবিশ্বাস্য এই ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার বিকেলে রংপুর সদর উপজেলার হরিদেবপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বিশ্বনাথপুর গ্রামে। বর্তমান শিশুটি রংপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ সার্কেল আবু তৈয়ব মোঃ আরিফ হোসেন জানান, অমানবিক ওই ঘটনাটি শোনার পর আমি ধর্ষককে গ্রেফতারের জন্য নির্দেশ দেই। বিভিন্নস্থানে অভিযানের পর ধর্ষক সাগর মহন্তকে মিঠাপুকুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমি তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। সে ধর্ষণের পুরো ঘটনাটি স্বীকার করেছে।

শিশুর পরিবার ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মায়ের কোলে ছিল পাঁচ বছরের শিশু কন্যাটি। খেলার কথা বলে মায়ের কোল থেকে শিশুটিকে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বাংলা বিভাগের এমএ ক্লাশে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী শ্রী সাগর মহন্ত। গরু রাখার ঘরে নিজের বিছানায় নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে সে। প্রচন্ড রক্ত ক্ষরণে শিশুটি অচেতন হয়ে পড়লে পালিয়ে যায় ধর্ষক শ্রী সাগর মহন্ত। একপর্যায়ে চিৎকার শুনে পরিবারে লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশের সহায়তায় রংপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে ধর্ষক শ্রী সাগর মহন্তের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কোতোয়ালি থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি)মোস্তাফিজার রহমান বলেন, ওই ধর্ষণের ঘটনাটি শোনার খবর পেয়ে সেখানে দ্রুত আমার কর্মকর্তা ও ফোর্স পাঠাই। অভিযুক্ত শ্রী সাগর মহন্তকে আটক করার চেষ্টা চালাই। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ সার্কেল আবু তৈয়ব মোঃ আরিফ হোসেন স্যারকে বিষয়টি জানালে তাঁর নির্দেশ গত তিনদিন ধরে আসামি সাগর মহন্তকে গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে সাঁড়াশী অভিযান চালানো হয়। শনিবার তাকে মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য