জেনে রাখুনঃ মাইগ্রেনের সমস্যায় করনীয়

জেনে রাখুনঃ মাইগ্রেনের সমস্যায় করনীয়

জেনে রাখুন

যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে, অনেক খাবারেই তাদের সমস্যা হয়। কিছু খাবার খেলে হঠ্যাৎ তাদের মাইগ্রেনের ব্যথা শুরু হয়। তাই যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে, তাদের কিছু খাবার এড়িয়ে যাওয়া ভালো। পাশাপাশি কোন খাবার খেলে ব্যথা কমতে পারে তা-ও জেনে রাখা ভালো।

কলা
অনেক সময় খালি পেটে থাকলে হাইপোগ্লাইসেমিয়া (রক্তে শর্করার মাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে কমে যাওয়া) হয়ে মাথা ধরে যেতে পারে। পরবর্তী সময়ে সেটাই মাইগ্রেনের ব্যথায় পরিণত হতে পারে। এর জন্য উপযুক্ত খাবার হলো কলা। ম্যাগনেশিয়ামে ভরপুর এই ফল খেলে খুব দ্রুত এনার্জি পাবেন এবং মাইগ্রেনের সম্ভাবনাও কমবে।

তরমুজ
পানি বেশি খেলে মাইগ্রেন অ্যাটাকের আশঙ্কা কমে এটা অনেকেরই জানা। তবে শরীর হাইড্রেটেড রাখতে শুধু পানি খাওয়াই যথেষ্ট নয়। সঙ্গে এমন খাবার খেতে হবে, যাতে পানির পরিমাণ বেশি। তরমুজে ৯২ শতাংশ পানি থাকে। এজন্য মাইগ্রেন নিরাময়ে তরমুজ খান।

বাদাম-বীজ
শরীরে ম্যাগনেশিয়ামের অভাব হলে মাথা ধরার প্রবণতা বেড়ে যায়। তাই রোজকার খাদ্যতালিকায় এমন খাবার রাখুন। বাদাম খেতে পারেন ঘুম থেকে উঠে। সালাদের সঙ্গে ফ্ল্যাক্সসিড, চিয়া সিড বা কুমড়ার বীজ মিশিয়ে দিতে পারেন। এতে ম্যাগনেশিয়ামের পাশাপাশি ফাইবারও রয়েছে প্রচুর।

ভেষজ চা
শরীর হাইড্রেটেড রাখতে ভেষজ চা খেতে পারেন। তাতে মাথা ধরার আশঙ্কা কমে। তা ছাড়া ‘ইন্টারন্যাশন্যাল জার্নাল অব প্রিভেন্টিভ মেডিসিন’ প্রকাশিত এক গবেষণাপত্র অনুযায়ী পুদিনাপাতা খাওয়া সাইনাসের জন্য উপকারী। তাই মাথা ধরার প্রবণতা কমাতে পিপারমিন্ট-টি খাওয়া শুরু করতে পারেন।

রিবোফ্লাভিন
অনেক সময় হজমের সমস্যা থেকে মাথা ধরতে পারে, যা পরবর্তী সময়ে মারাত্মক আকার ধারণ করে। তাই মাশরুম, ডিম বা বাদামের মতো খাবার, যাতে প্রচুর পরিমাণে রিবোফ্লাভিন রয়েছে, রাখুন রোজকার খাদ্যতালিকায়। এতে হজমশক্তি বাড়তে সাহায্য করবে। খাবার সময়মতো হজম হলে মাথা ধরার সমস্যাও কমে যাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য