Death

দিনাজপুরে নিখোজের ১ দিন পর কিশোরীর মাটি চাপা মরদেহ উদ্ধার

দিনাজপুর

দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় নিখোজের ১ দিন পর জাকিয়া আক্তার (১১) নামে এক কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে- কিশোরীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মরদেহ মাটি চাপা দেয়া হয়েছে।

রোববার সকাল ১০টায় জেলার কাহারোল উপজেলার ২নং রসুপুল ইউনিয়নের বনড়া গ্রামের একটি বিলের পাশে থেকে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কিশোরী জাকিয়া আক্তার ৩নং তারগাঁও ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলমের কন্যা। সে একই উপজেলার বাসুদেবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে কাহারোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আলী জানান, শনিবার দুপুরে উপজেলার তরলা বাজারে শিক্ষক শরিফুল ইসলামের বাড়ীতে প্রাইভেট পড়তে যায়। এরপর সে আর বাড়ীতে ফিরে আসে নি। পরে সেই শিক্ষকের বাড়ীতে কিশোরীর পরিবারের লোকজন গিয়ে জানতে পারে যে, কিশোরী জাকিয়া প্রাইভেট পড়তে আসে নি।

রোববার সকাল ১০টায় বনড়া গ্রামের একটি বিলের পাশে নতুন মাটির ঢিবি দেখে সন্দেহ হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটি খুড়ে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি কিশোরীকে পরিকপল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে। তবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে কি না তা ময়না তদন্তের পর জানা যাবে। এব্যাপারে পরিবারের পক্ষ থেকে কাহারোল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এই ঘটনার পর দিনাজপুরের পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোমিনুল করিম, কাহারোল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার রওশন আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য