তেঁতুলিয়ায় ছুরিকাঘাত করে যুবককে হত্যা

রংপুর

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় মোবাইল ফোন চুরি করার কথা বলতে গিয়ে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে দুলাল (২০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে।

হস্পতিবার বিকেলে তেঁতুলিয়া উপজেলার তিরনই হাট ইউনিয়নের ঠুনঠুনিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত দুলাল ওই গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় তেঁতুলিয়া মডেল থানার পুলিশ মূল হত্যাকারী একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে মজিবুল্লাহ সৈকতকে (২৪) আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত ২৮ জুন রাতে ঠুনঠুনিয়াপাড়া গ্রামের হযরত আলীর একটি সিম্ফনি স্মার্ট মোবাইল ফোন একই গ্রামের মজিবুল্লাহ সৈকত চুরি করে। মোবাইল ফোন চুরি করার সময় হযরতের চাচাত ভাই দুলাল দেখে ফেলে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঠুনঠুনিয়াপাড়া মসজিদের পাশে সৈকতের দেখা হলে দুলাল সৈকতকে মোবাইল চুরি করার কারণ ও হযরতের মোবাইলটি ফেরত দিতে বলে। এসময় উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে সৈকত পকেট থেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুলালের পেটে একাধিকবার আঘাত করে।

এতে ঘটনাস্থলেই দুলাল অজ্ঞান হয়ে পড়ে। এসময় ঘটনাস্থলে হযরতসহ স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিল। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে তেঁতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু সায়েম মিয়া জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত মূল হত্যাকারী সৈকতকে আটক করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য