কানাডায় আবারও মিললো আদিবাসী শিশুদের কবর

কানাডায় আবারও মিললো আদিবাসী শিশুদের কবর

আন্তর্জাতিক

কানাডার আরও একটি পুরনো আদিবাসী স্কুলের কাছে চিহ্ন না থাকা ১৮২টি কবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। বুধবার ব্রিটিশ কলম্বিয়া রাজ্যের ক্রানব্রুক এলাকার একটি স্কুলের কাছে এসব কবর পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে এসব কবর সাত থেকে ১৫ বছর বয়সী শিশুদের। এনিয়ে দেশটিতে মোট তিনটি পুরনো স্কুলের কাছে চিহ্নহীন শত শত কবরের সন্ধান মিললো। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি’র প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

১৯ ও ২০তম শতাব্দীতে আদিবাসী শিশুদের সভ্য করে তোলার নামে পরিচালিত হতো ১৩০টিরও বেশি আবাসিক স্কুল। কানাডার সরকার ও ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ এসব স্কুল পরিচালনা করতো। এসব স্কুলে শিশুদের ওপর নির্যাতন চালানোর অভিযোগ ছিলো। গত মে মাসে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ার কামলুপস এলাকার একটি পুরনো আবাসিক স্কুলের ভবন থেকে ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়। পরের মাসে সাসকাচেওয়ান প্রদেশের পুরনো একটি আদিবাসী আবাসিক স্কুলে মেলে ৭৫১টি কোনও চিহ্ন না থাকা কবর।

বুধবার ব্রিটিশ কলম্বিয়ার ক্রানব্রুকে যেসব কবর পাওয়া গেছে সেগুলো পুরনো সেন্ট ইগুয়েনে’স মিশন স্কুলের শিক্ষার্থীদের বলে ধারণা করা হচ্ছে। ১৯১২ থেকে ১৯৭০ দশকের প্রথম ভাগ পর্যন্ত কানাডার কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে স্কুলটি পরিচালনা করতো ক্যাথোলিক চার্চ।

এসব কবরের সন্ধান পাওয়ার ঘটনাকে ভয়াবহ আবিষ্কার বলে আখ্যা দিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এসব আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে জানা যাচ্ছে কানাডার আদিবাসী জনগণের নিপীড়িত হওয়ার ইতিহাস।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য