111

দেশে শনাক্ত রোগী ৯ লাখ ছাড়াল, আর মৃত্যু ১১২

জাতীয়

ঊনত্রিশ দিনে আরও এক লাখ মানুষের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় দেশে মোট শনাক্ত কোভিড রোগীর সংখ্যা নয় লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

মঙ্গলবার টানা তৃতীয় দিনের মত দেশে করোনাভাইরাসে শতাধিক মানুষের মৃত্যুর খবর এসেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত এক দিনে দেশে আরও ৭ হাজার ৬৬৬ জন কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ লাখ ৪ হাজার ৪৩৬ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে আরও ১১২ জনের মৃত্যু হয়েছে গত এক দিনে। এদের নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট ১৪ হাজার ৩৮৮ জনের মৃত্যু হল।

আগের দিন দেশে ৮ হাজার ৩৬৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বাংলাদেশে একদিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যার এটাই রেকর্ড।

মঙ্গলবার শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কমে এলেও পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ থেকে বেড়ে ২৩ দশমিক ৯৭ শতাংশ হয়েছে।

শনাক্ত হওয়া নতুন রোগীদের মধ্যে ৩০৬৮ জনই ঢাকা বিভাগের, যা মোট শনাক্তের ৪০ শতাংশ। এছাড়া খুলনা, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগেও হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে গত এক দিনে।

দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আগের দিনের ১০৪ জন থেকে বেড়ে ১১২ জন হয়েছে। এর মধ্যে কেবল খুলনা বিভাগেই ৩৫ জনের প্রাণ নিয়েছে এ ভাইরাস।

সরকারি হিসাবে, আক্রান্তদের মধ্যে একদিনে আরও ৪ হাজার ২৭ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তাদের নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ৮ লাখ ১১ হাজার ৭০০ জন।

গত বছর ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ার পর ২০ ডিসেম্বর শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ ছাড়িয়ে যায়। এরপর ৯৯ দিনে আরও এক লাখ রোগী শনাক্ত হওয়ায় ২৯ মার্চ দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছয় লাখ ছাড়ায়।

ততদিনে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কবলে পড়েছে বাংলাদেশ, দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে হু হু করে।

মাত্র ১৬ দিনে আরও এক লাখ মানুষের দেহে সংক্রমণ ধরা পড়লে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ এপ্রিল সাত লাখ পেরিয়ে যায়। এই এক লাখ শনাক্তে সময় লাগে ৪৭ দিন।

দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামলে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমে আসে মে মাসে। পরের এক লাখ রোগী শনাক্ত হতে সময় লাগে দেড় মাস; দেশে মোট শনাক্ত কোভিড রোগীর সংখ্যা আট লাখ ছাড়িয়ে যায় ৩১ মে।

করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ডেল্টার সামাজিক বিস্তার বা কমিউনিটি ট্রান্সমিশন ঘটায় জুনের শুরু থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সংক্রমণ ও মৃত্যু আবার বাড়তে শুরু করে। সেই পথ ধরে আরও এক লাখ রোগী শনাক্ত হল এক মাসের মধ্যে।

নয় লাখ শনাক্ত রোগীর দুঃখজনক মাইল ফলকে পৌঁছানের আগে সোমবার রেকর্ড ৮ হাজার ৩৬৪ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ার কথা জানায় সরকার।

করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এ বছর ১১ মে তা ১২ হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ২৭ জুন রেকর্ড ১১৯ জনের মৃত্যুর খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বিশ্বে শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ইতোমধ্যে ১৮ কোটি ১৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। মৃত্যু হয়েছে ৩৯ লাখ ৩১ হাজারের বেশি মানুষের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য