মগবাজার বিস্ফোরণ: শর্মাহাউজে হাইড্রোকার্বনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে

মগবাজার বিস্ফোরণ: শর্মাহাউজে হাইড্রোকার্বনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে

জাতীয়

মগবাজারে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় ভবনের নিচতলার শর্মাহাউজে হাইড্রোকার্বনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন বিস্ফোরক পরিদফতর। আজ সোমবার (২৮ জুন) পরিদফতরের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে পরিদফতরের এনার্জি অ্যান্ড মিনারেল রিসোর্সেস বিভাগের ডেপুটি সেক্রেটারি ইঞ্জিনিয়ার আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, শুধুমাত্র গ্যাস লিকেজ থেকে এতো ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটা অস্বাভাবিক। আমাদের অতীত অভিজ্ঞতা বলে এটা ডিফারেন্ট। ওই ভবনের নিচতলার শর্মাহাউজে হাইড্রোকার্বনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। যা ন্যাচারাল গ্যাস অর্থাৎ সরকারিভাবে পাইপ লাইনের মাধ্যমে সরবরাহ ও কানেকশন করা হয়ে থাকে।

তিনি আরও বলেন, এতো বড় বিস্ফোরণের কারণ কী, সেটা নিয়ে আমরাও দুশ্চিন্তায় আছি। বিভিন্ন ধরনের গ্যাস জমে এই বিস্ফোরণ হতে পারে বলে ধারণা করছে পরিদফতর।পেছনে আরও কোনো কারণ থাকতে পারে। সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে সোমবার (২৮ জুন) সকালে ১১টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, রাজধানীর মগবাজার ওয়ারলেস গেট এলাকায় বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রাথমিকভাবে নাশকতার আলামত পাওয়া যায়নি। সেখানে মিথেন গ্যাসের আলামত পাওয়া গেছে। এটি একটি একমুখী ধ্বংসযজ্ঞ। বোমা হলে চতুর্মাত্রিক ধ্বংসযজ্ঞ হতো। তবে সবগুলো বিষয় মাথায় রেখে তদন্ত করে দেখা হবে। বিস্ফোরণের ঘটনা বোম্ব এক্সপ্লোসন ইউনিট নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে খতিয়ে দেখা হবে।

মগবাজার ওয়ারলেস গেট এলাকায় ভবনে বিস্ফোরণের ঘটনায় সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য