কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিকসহ মা-ছেলেকে কুপিয়ে আহত

কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিকসহ মা-ছেলেকে কুপিয়ে আহত

জাতীয়

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সাহাজাদপুরে সাংবাদিক প্রশান্ত সুভাস চন্দ নামে এক স্থানীয় সাংবাদিককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে আবদুল কাদের মির্জার সমর্থিতরা।
এ সময় সন্ত্রাসীরা সুভাসের মা দেবী রানী চন্দ ও ছেলে প্রমীত প্রতাপ চন্দকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) দুপুর পৌনে একটার দিকে শহিদ উল্যাহ ওরফে কেচ্চা রাসেলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা তার বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় সাংবাদিক সুভাসের বসত ঘরও ভাংচুর করে।

আহত প্রশান্ত সুভাষ চন্দ্র (৪৭) দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের বিশেষ প্রতিনিধি ও আঞ্চলিক অনলাইন পোর্টাল চলমান সময়ের চীফ রিপোর্টার এবং উপজেলার সিরাজপুর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের শাহাজাতপুর গ্রামের কবিরাজ বাড়ির স্বপন কুমারের ছেলে।

হাসপাতালে সুভাসের স্বজনরা জানান, আবদুল কাদের মির্জার কাছের লোক কেচ্চা রাসেলের নেতৃত্বে ২৫-৩০ জন আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিতে সুভাসের বসত ঘরে হামলা চালায়। এ সময় তারা সুভাসকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। পরে তার ছেলে ও মাকেও কুপিয়ে-পিটিয়ে আহত করা হয়। সন্ত্রাসীরা তার বসত ঘরটিও তছনছ করে।

জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তার এক অনুসারী ফোন রিসিভ করে জানায় উনি বিশ্রামে আছে।

এ দিকে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট রূপালি চত্ত্বরে আ.লীগের দুটি গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এ ঘোষণা বলবৎ থাকবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জিয়াউল হক মীর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য