পেঁয়াজে

হিলি বন্দরে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ একমাস বন্ধের পর ইম্পোর্ট পারমিট (আইপি) পাওয়ায় আবারও দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। গত ৩ জুন থেকে এই বন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়। এদিকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হওয়ায় কমতে শুরু করেছে হিলি বন্দরে পেঁয়াজের দাম।

হিলি বন্দরের আড়তগুলো ঘুরে জানা গেছে, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানিতে কমে গেছে পেঁয়াজের দাম। এক সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা। গত বৃহস্পতিবার ( ৩ জুন) যে পেঁয়াজ পাইকারী বাজারে বিক্রি হয়েছে ৩৭ থেকে ৩৮ টাকা কেজি দরে। আর শুক্রবার ( ১১ জুন) সকালে সেই পেঁয়াজ প্রকারভেদে পাইকারী হচ্ছে ২৮ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে।

হিলি বাজারের পাইকারী পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ফেরদৌস রহমান বলেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি হওয়াতে দাম কমেছে কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা। আমরা আমদানিকারকদের নিকট পাইকারী ২৮ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে কিনে ৩০ থেকে ৩১ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি।

হিলি আমদানি-রপ্তানি কারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন জানান, আইপি না থাকায় ২৯ এপ্রিল ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ ছিলো। পেঁয়াজ আমদানির পারমিট আমদানিুকারকরা পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৩জুন) বিকেল থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। দামও অনেকটা কমে গেছে। পেঁয়াজ আমদানি চলমান থাকবে।আরও পেঁয়াজ আমদানি হবে এবং পেঁয়াজের দাম আরও কমে যাবে।

পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেডের গণসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক প্রতাপ বলেন, বৃহস্পতিবার (১০ জুন) ৩৬ ভারতীয় ট্রাকে ১ লাখ ৩৫ হাজার কেজি পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য