বিয়ে নয়, নিখিলের সঙ্গে লিভ টুগেদার করেছি: নুসরাত

বিয়ে নয়, নিখিলের সঙ্গে লিভ টুগেদার করেছি: নুসরাত

বিনোদন

পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান প্রেমিক অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সন্তানের মা হচ্ছেন। তার আগে ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে সংসার করেছেন তিনি। সন্তানের মা হওয়ার খবর আসার পর এবার নুসরাত জানালেন নিখিল তার স্বামী ছিলো না, তার সঙ্গে লিভ টুগেদার করেছেন তিনি।

সপ্তাহ ধরে নুসরাতের মা হওয়া, নিখিলের সঙ্গে বিচ্ছেদ ও যশের সঙ্গে প্রেম নিয়ে মুখ বন্ধ রেখেছিলেন নুসরাত জাহান। সব বিষয়গুলো নিয়ে এবার নুসরাত কলকাতার প্রভাবশালী আনন্দবাজার পত্রিকায় মুখ খুলেছেন। গতকাল এক বিবৃতিতে অভিনেত্রী ও সাংসদ নুসরাত জাহান গণমাধ্যমটিকে জানিয়েছেন, ‘নিখিলের সঙ্গে আমি লিভ টুগেদার করেছি, বিয়ে নয়। ফলে বিবাহ-বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না।’

নুসরাত জাহান জানিয়েছেন, তুরস্কে বিয়ে হয়েছিল তাঁদের। তুরস্কের বিবাহ আইন অনুসারে ওই অনুষ্ঠান অবৈধ। উপরন্তু হিন্দু-মুসলিম বিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ বিবাহ আইন অনুসারে বিয়ে করা উচিত। যা এ ক্ষেত্রে মানা হয়নি। ফলত, এটা বিয়েই নয়। এর আগে আনন্দবাজার পত্রিকার খবর, দীর্ঘ দিনের বিচ্ছেদের পর এবার আলিপুর আদালতে মুখোমুখি হবেন তাঁরা।

নিখিল জৈন জানিয়েছেন, নুসরাতের সঙ্গে বিচ্ছেদ চেয়ে মামলা করেছিলেন তিনি। সূত্রের খবর, আগামী ২০ জুলাই সেই মামলার শুনানির দ্বিতীয় তারিখ। বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যেতে আদালতে উপস্থিত হতে হবে দুই পক্ষকেই। বছরের শুরুতে স্বামী ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে বিচ্ছেদ, অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে প্রেম; এসব ছাপিয়ে নুসরাত জাহান এখন খবরের শিরোনাম প্রেমিক যশের সন্তানের মা হওয়ার গুঞ্জনে।

ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, আগামী সেপ্টেম্বরে মা হতে চলেছেন নুসরাত। তবে নুসরাতের মা হওয়া প্রসঙ্গে নুসরাতের স্বামী নিখিল জৈন আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানিয়েছেন, ‘এই বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। ওর সঙ্গে দীর্ঘ দিন আমার কোনো সম্পর্ক নেই। এর থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায় যে, এই সন্তান আমার নয়।’ পরে গুঞ্জন রটে, নুসরাতের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই বিচ্ছেদের মামলা করেছিলেন নিখিল।

তবে সেই গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে নিখিল বলেছেন, ‘যে দিন জানলাম, নুসরাত আমার সঙ্গে থাকতে চায় না, অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সেদিনই দেওয়ানি মামলা দায়ের করেছি আমি। নুসরাতের মা হওয়ার পরে এই সিদ্ধান্ত নিইনি আমি।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য