১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত লকডাউন, বিয়ে-জন্মদিনের অনুষ্ঠানে নিষেধাজ্ঞা

জাতীয়

চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ ফের বাড়িয়েছে সরকার। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত চলবে বিধিনিষেধ।

গত ৬ জুন মধ্যরাত থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়িয়ে রোববার (৬ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনার সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বিধি-নিষেধ আরোপের সময়সীমা ৬ জুন মধ্যরাত থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধের অংশ হিসেবে সরকার বিবাহত্তোর অনুষ্ঠানসহ জনসমাবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। রোববার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টির মতো জনসমাবেশ হয় এমন সামাজিক অনুষ্ঠান, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে। এছাড়া, পর্যটনস্থল, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্রও বন্ধ রাখতে বলা হয়।

প্রজ্ঞাপনে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত ‘লকডাউন’ বাড়ানোর কথা জানিয়ে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত পরিস্থিতি বিবেচনায় আগের সব বিধি-নিষেধের সময়সীমা ৬ জুন মধ্যরাত থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো।

দেশে করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ ঠেকাতে ইতোমধ্যে সীমান্তবর্তী কয়েকটি জেলায় পুরোপুরি বা আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

গত ৫ এপ্রিল প্রথম সাত দিনের জন্য গণপরিবহন চলাচলসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ জারি করেছিল সরকার। পরে তা আরও দুদিন বাড়ানো হয়। পরে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়। এরপর তা বেড়েছে কয়েক দফা। লকডাউনের মধ্যে গত ২৪ মে থেকে গণপরিবহন চলার অনুমতি দেওয়া হয়।