চীনকে মোকাবিলায় বুদ্ধিমান ট্যাংক আনছে ভারত

চীনকে মোকাবিলায় বুদ্ধিমান ট্যাংক আনছে ভারত

আন্তর্জাতিক

চীনের মোকাবিলায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসমৃদ্ধ ব্যাটল ট্যাংকের দিকে ঝুঁকছে ভারত। এর অংশ হিসেবে ২০৩০ সালের মধ্যে এ ধরনের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ‘বুদ্ধিমান ট্যাংক’ সংগ্রহ করতে চায় দেশটির সামরিক বাহিনী। ফিউচার রেডি কমব্যাট ভেহিকল (এফআরসিভি)-এর জন্য নতুন প্রজন্মের এসব ফিউচার ট্যাংক সংগ্রহে আগ্রহী ভারতীয় সেনাবাহিনী। রিকোয়েস্ট ফর ইনফরমেশন (আরএফআই)-এর আওতায় এ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম উইওন নিউজ।

চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই গত বছর লাদাখ সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় টি-৯০ ভীষ্ম ট্যাংক মোতায়েন করে দিল্লি। স্থলযুদ্ধে ভারতের অন্যতম শক্তিশালী এই ব্যাটল ট্যাংক জৈব ও রাসায়নিক অস্ত্র প্রতিরোধে সক্ষম। ৪৮ টন ওজনের এই ট্যাংকটি ছয় কিলোমিটারেরও বেশি দূর পর্যন্ত মিসাইল নিক্ষেপ করতে সক্ষম।

সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় টি-৯০ ভীষ্ম ট্যাংক মোতায়েনের এক বছরের মাথায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসমৃদ্ধ ব্যাটল ট্যাংকের ওপরই জোর দিচ্ছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

উইওন নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতীয় সেনাবাহিনী দরপত্রের মাধ্যমে বিদেশ থেকে এ ধরনের ট্যাংক সংগ্রহ করতে চাইছে। মূলত কৌশলগত অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে এগুলো সংগ্রহে আগ্রহী দিল্লি। এক্ষেত্রে ভবিষ্যতের হুমকি মোকাবিলার পাশাপাশি সামরিক সরঞ্জামের প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার বিষয়টিও বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের প্রত্যাশা, নতুন এই ট্যাংকগুলো হাতে পেলে পরবর্তী ৪০ থেকে ৫০ বছর ধরে এগুলোই হবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মূল ব্যাটল ট্যাংক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য