গাইবান্ধা পৌরসভার ৯৯ কোটি ৩২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষনা

গাইবান্ধা পৌরসভার ৯৯ কোটি ৩২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষনা

রংপুর বিভাগ

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ স্বচ্ছতা, জবাবদীহিতা এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের বাজেট বাস্তবায়নে পৌরবাসীর উন্নত নাগরিক সেবা প্রদানের জন্য বৃহস্পতিবার (৩ জুন) দুপুরে গাইবান্ধা পৌরসভার মিলনায়তনে গাইবান্ধা পৌরসভার ২০২১-২০২২ অর্থ বৎসরের বাজেট উপলক্ষে এক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পৌরসভার প্যানেল মেয়র, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ও কাউন্সিলররা বাজেট আলোচনা সভায় অংশ নেন।

গাইবান্ধা পৌরসভার মেয়র মো. মতলুবর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌরভার কাউন্সিলর মোছা. মাহাফুজা খানম মিতা, বেগম মমতা সরকার, সাবিনা বেগম, মো. শেখ শাহীন, আবু জাফর মো. মহিউদ্দিন, মো. কামাল হোসেন, মো. রকিবুল হাসান, মো. আব্দুল সামাদ রোকন, শহীদ আহম্মেদ, মোহাম্মদ আবুবকর সিদ্দিক, শেখ সর্দার আসাদুজ্জামান ও মো. কাজী হুমায়ুন কবির স্বপন প্রমুখ। বাজেট উপস্থাপন করেন হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা বিপুল কুমার সাহা। এসময় পৌরসভার সচিব (অঃদাঃ) মো. রেজাউল হকসহ পৌরসভার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় পৌর মেয়র মতলুবর রহমান বলেন, “বাজেটে বিদ্যুৎ বিল, ভূমি উন্নয়ন করসহ সকল বকেয়া পরিশোধে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। এছাড়া দারিদহ্রাসকরণ কর্মপরিকল্পনা, নারীর ক্ষমতায়ন, মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর ও তোরণ নির্মাণ, মুজিববর্ষ উদ্যাপন, পাঠাগার ও বইপুস্তক ক্রয়, যুব সমাজের অবক্ষয় রোধে খেলাধূলা ও সংস্কৃতি, আলোকিত শহর এবং পরিবেশ উন্নয়নে বৃক্ষরোপন গড়তে বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়নের উপর গুরুত্বরোপ করা হয়েছে। পৌরবাসীর বিশুদ্ধ পানীয় জলের অভাব মোচনের জন্য নলকূপ স্থাপন ও পুনঃস্থাপনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।”

তিনি আরো বলেন, “স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নভেল করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকারী বরাদ্দ ছাড়াও পৌরসভার নিজস্ব অর্থায়নে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকাসহ বিভিন্ন প্রতিরোধমূলক কার্যক্রমের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

এরআগে পৌর পরিষদের সভায় উস্থাপিত বাজেট টি অনুমোদন করা হয়। পরে ২০২১-২০২২ অর্থ বৎসরে জন্য প্রস্তাবিত মোট ৯৯ কোটি ৩২ লক্ষ টাকার বাজেট ঘোষনা করেন পৌর মেয়র মো. মতলুবর রহমান। এসময় পৌর পরিষদ ছাড়াও শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। ২০২১-২০২২ অর্থবৎসরের বাজেটের মোট আয়, ৯৯ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা। মোট ব্যয় ৯৯ কোটি ২৬ লক্ষ ৪০হাজার টাকা। বাজেটে উদ্বৃত্ত ৫ লক্ষ ৬০ হাজার ধরা হয়েছে।

২০২১-২০২২ অর্থবৎসরের বাজেটের সারসংক্ষেপে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯ কোটি ৫ লক্ষ টাকা, পানির সরবরাহ শাখার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ কোটি ৭২ লক্ষ টাকা। মোট (রাজস্ব ও পানি) আয় নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা। রাজস্ব ব্যয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯ কোটি ১ লক্ষ টাকা, পানির ব্যয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ কোটি ৭০ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা। মোট ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ কোটি ৭১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা।

এডিবি উন্নয়ন খাতে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ কোটি, বিভিন্ন প্রকল্প হতে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৪ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকা, মোট আয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৭ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকা। প্রস্তাবিত বাজেট আয় ৯৯ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা, মোট ব্যয় ৯৯ কোটি ২৬ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা, বাজেটে উদ্বৃত্ত দেখানো হয়েছে ৫ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য; আয়ের খাতঃ ট্যাক্সেস ৫ কোটি ৭৭ লক্ষ, রেইট ৩ কোটি ৭৫ লক্ষ, ফিস ৬৪ লক্ষ, হাট বাজার ইজারা ও অন্যান্য ৩ কোটি ৭৯ লক্ষ টাকা। উল্লেখযোগ্য সম্ভাব্য ব্যয়ের খাত মেয়র-কাউন্সিলরবৃন্দের সম্মানি ভাতা ১৯ লক্ষ ২০ হাজার, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা ৪ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা, আনুতোষিক তহবিল স্থানান্তর ২৪ লক্ষ, পার্ক ড্রেন লেবার হাজিরা মজুরী ৬০ লক্ষ, সুইপার হাজিরা মজুরী ২০ লক্ষ, নিজস্ব খাতে উন্নয়ন ২ কোটি, রাস্তা আলোকিতকরণ/বৈদ্যুতিক মালামাল ক্রয় ২৫ লক্ষ, ভুমি উন্নয়ন কর ১২ লক্ষ, প্রচার বিজ্ঞাপন ৮ লক্ষ, দারিদ্র হ্রাসকরণ কর্মপরিকল্পনা ৪০ লক্ষ, জেন্ডার এ্যাকশন প্ল্যান ২০ লক্ষ, বিএমডিএফ তহবিল স্থানান্তর ৪০ লক্ষ, পাঠাগার ও বইপুস্তক ক্রয় ৭ লক্ষ, খেলাধূলা ও সংস্কৃতি ৫ লক্ষ, নূলকুপ স্থাপন ও পূনঃস্থাপন ৮ লক্ষ, বিদ্যুৎ বিল বাবদ ৫ কোটি টাকার হিসাব বাজেটে ব্যয় ধরা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য