অবিলম্বে সবধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন

অবিলম্বে সবধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ শিক্ষাজীবন রক্ষার্থে অবিলম্বে সবধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবী জানিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, দিনাজপুর জেলা শাখা।

আজ বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে ঘন্টাব্যাপী এই মানবন্ধন কর্মসূচী পালন করে বর্ণিত সংগঠনটি। এ সময় অংশনেন প্রায় অর্ধশতাধিক সংগঠনের সদস্যবৃন্দ। উক্ত কর্মসূচীতে স্বাস্থ্যবিধির নাম করে সকলকিছু খোলা রেখে, রেখেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ এবং পাসপোর্ট থেকে ইসরাইল শব্দটি বাদ দেওয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ উপস্থাপন করে।

এসময় বক্তরা বলেন, আজকে আমরা সরকারকে বলতে চাই, জনগণ আর কিছুদিন গেলেই আপনাদের পাগল বলবে। কারণ আজকে বাহিরে বের হলেই বাজারগুলোতে দেখা যায়, মানুষের কতটা ভীড়। পরিবহণের ক্ষেত্রে বলা হয়েছিল একটি সিট পরপর মানুষ বসবে। কিন্তু মানুষ গাদাগাদি করে বাহণে বসছে।

যদি এভাবেই চলবে তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানুগুলো কেন বন্ধ। আজকে মাদ্রাসা গুলোও বন্ধ যেখানে কুরআন শরিফ আল্লাহর বানী পাঠ করা হতো। সেখান থেকে আর সেই বানী ভেসে আসে না। এমন ভাবে চলতে থাকলে জাতি আপনাদের দেখে উপহাস করবে। আমরা দাবি জানাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো অবিলম্বে খুলে দেওয়া হোক।

যদি এর পরেও সরকার কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করে তবে ছাত্র আন্দোলন শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘেরাও করবে। পাসপোর্টে লেখা ছিলো এই পাসপোর্টে গোটা বিশ্ব ভ্রমণ করা যাবে শুধু ইসরাইল ছাড়া কিন্তু এখন ‘ইসরাইল ছাড়া’ শব্দটি উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে এটা কিসের ইঙ্গিত। এটা প্রমাণ করে ইসরাইলের সাথে আপনারা গোপন পিরিত শুরু করেছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে অযুহাত হিসেবে বলছেন পাসপোর্ট শক্তিশালী করতে এই শব্দ উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সরকারকে আমরা মনে করিয়ে দিতে চাই, মালশিয়ার পাসপোর্ট আজকে বিশ্বের ১২তম শক্তিশালী পাসপোর্ট, অথচ তাদের পাসপোর্টে ‘ইসরাইল ছাড়া’ কথাটি উল্লেখ এখন আছে। তারা যদি আজ ‘ইসরাইল ছাড়া’ শব্দটি থেকেও ১২ তম শক্তিশালী পাসপোর্ট হতে পারে তবে আপনি বাংলাদেশের পাসপোর্ট থেকে ‘ইসরাইল ছাড়া’ কথা বাদ দিয়ে কত বড় শক্তিশালী পাসপোর্ট হিসেবে প্রকাশ করলেন।

উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন জেলা শাখার সভাপতি সোহরাব হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক খাইরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ হাসান, যুব আন্দোলন জেলা শাখার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, সভাপতি আজিজুল হক প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য