নাগেশ্বরীতে স্বামীর সহযোগিতায় নববধু ধর্ষণের শিকার, আটক স্বামী

রংপুর বিভাগ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে স্বামীর সহযাগিতায় স্বামীর ভগ্নিপতি দ্বারা এক নববধু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযােগ উঠেছে। স্বামীকে আটক করেছে কচাকাটা থানা পুলিশ। ওই নববধূ এখন কচাকাটা থানায় ভিকটিম সাপাের্ট হােমে রাখা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে নাগেশ্বরী উপজেলার কেদার ইউনিয়নের সরকারটারী গ্রামে।

ধর্ষণের শিকার নবধুর স্বজন এবং পুলিশ জানায়, গত ২৩ মে রবিবার কেদার ইউনিয়নের শিপেরহাট গ্রামের লাল দেওয়ানীর (জাদক) এর ছেলে আব্দুল হাকিমের সাথে ওই নববধুর বিয়ে হয়। পরদিন ২৪ মে সোমবার সন্ধায় ওই নববধু স্বামী হাকিমের ভগ্নিপতি একই ইউনিয়নের চাটাম ছড়ার পাড় শােভারকুটি গ্রামের জালাল মিয়ার ছেলে বাবু মিয়াসহ বাপের বাড়ি সরকারটারী গ্রামে আস।

গতকাল ২৫ মে সকাল ১১টার দিকে নববধু তার স্বামী, স্বামীর ভগ্নিপতিসহ পাশ্বের চাচার বাড়িতে বেড়াত যায়। এসময় চাচার বাড়ি ফাঁকা পেয়ে স্বামী হাকিমের সহযাগিতায় ওই নববধুকে ধর্ষণ করে বাবু মিয়া। পরে ঘটনাটি প্রকাশ পেলে নবধুর বড় ভাই সেকন্দার আলী বুধবার সকালে কচাকাটা থানায় একটি অভিযােগ করে। তার অভিযােগের প্রেক্ষিতে নববধুকে উদ্ধার এবং তার স্বামী আব্দুল হাকিমকে আটক করে পুলিশ। এদিকে ঘটনার পরপরই গা-ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্ত বাবু মিয়া।

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাবুব আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভিকটিম পুলিশের হেফাজতে আছে, ভিকটিমের স্বামীকে আটক করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য