তাইওয়ানের সমুদ্রসীমা জুড়ে সশস্ত্র সংঘাতের ঝুঁকি সর্বোচ্চ

তাইওয়ানের সমুদ্রসীমা জুড়ে সশস্ত্র সংঘাতের ঝুঁকি সর্বোচ্চ

আন্তর্জাতিক

তাইওয়ানের সমুদ্রসীমা জুড়ে উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ার কারণে সশস্ত্র সংঘাত হওয়ার সম্ভাবনার ঝুঁকি বর্তমানে সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। এ শঙ্কা প্রকাশ করেছে বেইজিং সমর্থিত একটি থিঙ্ক-ট্যাংক। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা এএনআই।

সেখানে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহের বুধবার চায়না ক্রস-জলসীমা একাডেমি একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। চীনের মূল ভূখন্ড থেকে তাইওয়ানকে আলাদা করা ১৮০ কিলোমিটার প্রশস্ত জলসীমার সম্পর্ক নিয়ে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি মোতাবেক মার্কিন নৌবাহিনীর ধ্বংসকারী জাহাজ ইউএসএস কারটিস উইলবার (ডিডিজি ৫৪) তাইওয়ানের জলসীমায় স্থানান্তরিত হওয়ার পর রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।

থিঙ্ক-ট্যাংক বলছে, গবেষকদের উচিত উভয় পক্ষের সামরিক শক্তি, বাণিজ্যিক সম্পর্ক, জনগণের মতামত, রাজনৈতিক কর্মসূচি এবং মিত্রদের কাছ থেকে সমর্থনের বিষয়ে নজর দেওয়া। কারণ, তারা এখন যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। পুরো সমুদ্রসীমা জুড়ে যুদ্ধের শঙ্কা এই মুহূর্তে ১০ মাত্রার ইনডেক্স স্কেলে ৭.২১ তে অবস্থান করছে।

হংকং ভিত্তিক থিঙ্ক-ট্যাংকটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন লেই জিয়াং। তিনি ক্ষমতাসীন কমিউনিষ্ট পার্টি সমর্থিত চীন যুব ফেডারেশনের কমিটির সদস্য।

লেই জিয়াং বলেন, বর্তমানের উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিবেচনায় যদি কোনো পক্ষ ভুল সিদ্ধান্ত বা পদক্ষেপ নেয় তাহলে বিশাল অনিশ্চয়তা সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এটা বলা ভুল হবে না যে, তাইওয়ানের পুরো সমুদ্রসীমা জুড়েই ঝুঁকি সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য