মোবাইলে গেমস খেলা কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৩০!

মোবাইলে গেমস খেলা কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৩০!

জাতীয়

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে মোবাইলে গেমস খেলাকে কেন্দ্র করে বর্তমান ইউপি সদস্য চুন্নু গ্রুপ ও সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল গফুরের গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুজন পুলিশসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষে জড়িত থাকার অপরাধে আটক করা হয়েছে ২১ জনকে। এখনও এলাকায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে চুন্নু গ্রুপ ও গফুর গ্রুপের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সংঘাত এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

কৈজুরী ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল গফুর জানান, দীর্ঘদিন ধরে বর্তমান মেম্বর চুন্নুর লোকজন এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে আসছিল। সর্বশেষ মোবাইল গেম খেলাকে কেন্দ্র করে দ্বন্দ্ব দুই গ্রুপ জড়িয়ে পড়ে।

গফুর জানান, গত সোমবার বিকেলে তার গ্রুপের মুদি দোকান ব্যবসায়ী আমিরুলকে মারধর ও তার কাছে থাকা গরু বিক্রির টাকা ছিনিয়ে নিয় চুন্নুর লোকজন। এরপর গত মঙ্গলবার সকালে পরিকল্পিতভাবে তার পক্ষের প্রবাসী নজরুলের বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুট করলে তাদের লোকজন সংঘটিত হলে সংঘর্ষ বাঁধে।

বর্তমান ইউপি সদস্য চুন্নু জানান, গফুর মেম্বরের লোকজন মঙ্গলবার সকালে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ৫০/৬০ জন লাঠিসোটা দেশি অস্ত্র, সস্ত্র নিয়ে তার গ্রুপের হাবিলের বাড়িতে হামলা করে। খবর পেয়ে তার লোকজন প্রতিরোধ গড়ে তুললে সংঘর্ষ বাঁধে। তি

শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ খান ও পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল মজিদ জানান, মোবাইল গেমস খেলাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িতে পরে। সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে আমাদের দুজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ২১ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

বর্তমানে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উভয় পক্ষ মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে স্থানীয় ভাবে জানা গেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য