সৈয়দপুরে ভেজাল পণ্যে ভরে গেছে বাজার। দীর্ঘদিন ধরে এ সকল ভেজাল পণ্যে বাজার সয়লাব হলেও দায়িত্বে থাকা কর্তৃপক্ষ অজ্ঞাত কারণে নীরব ভূমিকা পালন করছে। মাঝে মধ্যে বিএসটিআই এর রাজশাহী অঞ্চলের দায়িত্বে থাকা ফিল্ড কর্মকর্তা প্রশাসনিক সহযোগিতা নিয়ে অভিযান চালালেও অজ্ঞাত কারণে এ ভেজাল বন্ধ না হয়ে আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে শহরের মধ্যে নিম্নমানের শিশুদের খাবার তৈরি এবং বাজারজাত করা হচ্ছে। পণ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে শিশুদের খাবার জুস, জুস খাবার পাইপ, চানাচুর, চকলেট, মরব্বা, পাকা মিটাই, চিপস, আচার, ললিপপ, পাইপ দই, আইসক্রিমসহ আরও বিভিন্ন প্রকার শিশুদের খাবার। এগুলোর বিএসটিআই এর কোন অনুমোদন নেই। এগুলো খাওয়ার অনুপযোগী। এ সকল খাবার দ্রব্যাদি শিশুরা খেয়ে নানা প্রকার রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এ ব্যপারে শহরের একজন চিকিৎসক জানান, এ খাবারগুলো অত্যন্ত নিম্নমানের এবং ভেজালযুক্ত। সরকারিভাবে এগুলো তৈরি এবং বাজারজাত করার কোন অনুমোদন নেই। শহরের এক শ্রেণীর অসাধু ও অর্থলোভী ব্যবসায়ী এগুলো নিজস্ব ছোট ছোট ফ্যাক্টরিতে তৈরি করে তা গোপনে বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করে আসছে। এদের মধ্যে অন্যতম হলো শহরের বিচালী হাটি এলাকার হালিম বাবু। বর্তমানে এ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালানো দাবি তুলেছে শহরের সচেতন মহল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য