দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ও নবাবগঞ্জে ধান ক্রয়ে কৃষক নির্বাচনে উন্মুক্ত লাটারী অনুষ্ঠিত

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ও নবাবগঞ্জে ধান ক্রয়ে কৃষক নির্বাচনে উন্মুক্ত লাটারী অনুষ্ঠিত

দিনাজপুর

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ ধানের দেশ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বোরো ধান কিনতে উপজেলা ৩২ হাজার ৫৫০ জন কৃষকের মধ্যে লটারীতে ৯৯৯জন কৃষক নির্বাচন করেছেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অধিদপ্তর ও উপজেলা প্রশাসন।

রোববার সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্য্যলয় প্রাঙ্গনে কৃষক নির্বাচনের লটারী উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিল্টন। এসময় সহকারী কমিশনার ভূমি কানিজ আফরোজ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রুম্মান আক্তার, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক (অতিঃদাঃ) হালিমুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মঞ্জু রায় চৌধুরীসহ উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্য্যলয়ের পদস্থ কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক হালিমুর রহমান জানান, বোরো মৌসুমে প্রতিকেজি ২৭ টাকা দরে এই উপজেলায় প্রতিজন কৃষকের নিকট দুই মেঃটন করে ৯৯৯জন কৃষকের নিকট থেকে এক হাজার ৯৯৮ মেঃটন ধান ক্রয় করা হবে। কিন্তু সরকারের নিকট সরাসরি ধান বিক্রয়ের জন্য ৪ হাজার ৩২৩ কৃষক আবেদন করেছে, এদের মধ্যে লটারীর মাধ্যমে ৯৯৯জন কৃষককে নির্বাচন করা হয়েছে। এছাড়া বোরো মৌসুমে প্রতিকেজি ৪২ টাকা দরে এই উপজেলায় ৪ হাজার ২২৫ মেঃটন চাল মীলারদের নিকট থেকে ক্রয় করা হবে বলে তিনি জানান।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রুমামান আক্তার বলেন এই উপজেলায় ৩২ হাজার ৫৫০জন কৃষক রয়েছে, তার মধ্যে ২০ হাজার কৃষক ১৪ হাজার ২২০ হেক্টর জমিতে বোরোধান চাষ করেছে, এতে প্রায় ৫০ হাজার মেঃটন ধান উৎপাদন হয়েছে বলে তিনি জানান।

এদিকে, কৃষকের উন্নয়ন প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সরকারী ভাবে ধান ক্রয়ের জন্য অভ্যন্তরীণ বোরো ধান সংগ্রহ/২০২১ মৌসুমে উন্মুক্ত লটারীর মাধ্যমে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ইউনিয়ন ভিত্তিক কৃষক নিবর্বাচণ করা হয়েছে।

রবিবার বিকাল ৩টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাকক্ষে ওই লটারী অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, সহকারী কমিশনার(ভ’মি) মো. আল মামুন, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. হালিমুর রহমান ওসি এল এস ডি আমজাদ হোসেন ওসি এল এস ডি আফজাল হোসেন ইউ,পি চেয়ারম্যান মো. মনোয়ার হোসেন ও নবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. মতিয়ার রহমান উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা কৃষি অফিসার জানান ধান সরবরাহের জন্য উপজেলার ৩ হাজার ৮২৪ জন কৃষক আবেদন করেছেন। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জানান চলতি মৌসুমে ১ হাজার ২৫৩ জন কৃষকের নিকট থেকে ২ হাজার ৫০০ মেঃটন ধান সরকারী মূল্যে ক্রয় করা হবে। এরমধ্যে নির্বাচিত প্রতিজন কৃষক ২ মেঃ টন করে ধান সরবরাহ করতে পরবেন। আগামী ১৬ আগস্ট পর্যন্ত ওই ধান ক্রয় করা হবে। তিনি আরও জানান ভাদুরিয় খাদ্য গুদামে ১ হাজার ১৫০ মেঃ টন এবং দাউদপুর খাদ্য গুদামে ১ হাজার ৩৫০ মেঃ টন ধান ক্রয়ের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য