সামনের গ্রীষ্মেই বিয়ের পরিকল্পনা আডার্নের

সামনের গ্রীষ্মেই বিয়ের পরিকল্পনা আডার্নের

আন্তর্জাতিক

নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আডার্ন জানিয়েছেন, তিনি সামনের গ্রীষ্মেই দীর্ঘদিনের সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ডকে বিয়ের পরিকল্পনা করছেন। ২০১৯ সালে তারা বাগদান সেরেছিলেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। স্থানীয় কোস্ট রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিয়ের পরিকল্পনার কথা জানালেও তারিখ বলেননি নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। “আমরা দু’জন অবশেষে বিয়ের একটি তারিখ পেয়েছি,” সাক্ষাৎকারে আডার্ন এমনটাই বলেছেন বলে বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে নিউ জিল্যান্ড হেরাল্ড। ঘটা করে বিয়ে না করার ইঙ্গিতও দিয়েছেন তিনি। “ব্রাইডাল পার্টি করার মতো বয়সের চেয়ে খানিবটা বেশি বয়স হয়ে গেছে বলেই মনে হয় আমার,” সাক্ষাৎকারে ৪০ বছর বয়সী আডার্ন এমনটাই বলেছেন বলে জানানো হয়েছে ওই প্রতিবেদনে। তার সঙ্গী গেফোর্ডের বয়স ৪৪। এ যুগলের দুই বছর বয়সী একটি মেয়েও আছে। বুধবার সকালের প্রতিবেদনে যা জানানো হয়েছে তার সঙ্গে নতুন করে যোগ করার মতো কিছু নেই,” বুধবার রয়টার্সকে বলেছেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক মুখপাত্র। আডার্ন প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী হন ২০১৭ সালে; তিনিই দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে এ পদে বসেন। পরের বছরই তার কন্যা সন্তানের জন্ম হয়; আডার্নের আগে কেবল পাকিস্তানের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোই প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে মা হয়েছিলেন। কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলায় তার সরকারের অসামান্য সাফল্য আডার্নকে ফের ক্ষমতায় নিয়ে আসে। গত বছরের অক্টোবরের নির্বাচনে তার মধ্য-বামপন্থি লেবার পার্টি অর্ধশতকে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়ে জয়লাভ করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য