ঠাকুরগাঁওয়ে সাবেক চেয়ারম্যানসহ পরিবারের সদস্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ে সাবেক চেয়ারম্যানসহ পরিবারের সদস্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার

রংপুর বিভাগ

ঠাকুরগাঁও সংবাদাতাঃ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে রবিবার(২/৫/২১) আনুমানিক সকাল ১০টার সময় উপজেলার ৪নং ডাঙ্গীপারা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অনীল চন্দ্র সহ তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার।

চেয়ারম্যান অনীল চন্দ্র, দিলীপ চন্দ্র (ছেলে), দীপ্তি (বউমা),মিনা রানী ( মেয়ে), মন্দিরা (নাতনী) সকলের সাং বীরগড় থানা-হরিপুর জেলা -ঠাকুরগাঁও, চৈতী পিতা-আনন্দ সাং-ঠাকুরগাঁও সদর(নাতনী), কাঞ্চন স্বামী নরেশ সাং দেবীগঞ্জ থানা-ঐ জেলা পঞ্চগড় (বেহাইন) মোট ০৭ জন বাড়িতে সকাল ১০.০০ টার পর হইতে বিভিন্ন সময় খাওয়া দাওয়া করে রহস্যজনকভাবে তন্দ্রাচ্ছন্ন হয়ে যে যার মত শুয়ে পড়ে।

সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান অনীল চন্দ্রের নাতনী চৈতী একটু দেরিতে ভাত খায়। তার মামি দীপ্তি বলে যে আমার ঘুম ঘুম ভাব লাগছে, তুমি খেয়ে নিও। চৈতী আনুমানিক দুপুর ১২ টার সময় ভাত খায় এবং সকলেই অচেতন অবস্থায় বাড়িতে ঘুমিয়ে পরে। বিকাল ৩.৩০ মিনিটের সময় সাবেক চেয়ারম্যান অনীল চন্দ্র এর ছেলে দিলিপ চন্দ্র মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি হইতে হরিপুর বটতলী বাজার করে আনুমানিক বিকাল ৫.৫০ মিনিটে টলমল অবস্থায় বাড়ীতে ফেরার পথে বাজারের সামনে ভ্যানের সংগে ধাক্কালেগে পড়ে যায়।

আশেপাশের লোকজন তাকে মোটরসাইকেল’সহ তার বাড়িতে পৌঁছাইয়া দিতে গিয়ে দেখে সকলেই যে যার মত অচেতন অবস্থায় শুয়ে আছে। স্থানীয় লোকজন হরিপুর থানায় বিষয়টি অবহিত করলে অস্ত্র থানা পুলিশ দ্রুত প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করে সবাইকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইফতারের আগে ভর্তি করায়। বর্তমানে তাহারা সকলেই হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রহিয়াছে।

হরিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আওরঙ্গজেব জানান, মোবাইল ফোনে খবর পেয়ে পরিবারের সবাইকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। দ্রুত পুলিশি কার্যক্রম এর কারণে একটি সঙ্ঘবদ্ধ চুরি প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়েছে এছাড়াও উক্ত বসত গৃহের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য