বীরগঞ্জে দোকান মার্কেটে ক্রেতাদের ব্যাপক উপস্থিত

বীরগঞ্জে দোকান মার্কেটে ক্রেতাদের ব্যাপক উপস্থিত

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ চলমান সর্বাত্মক লকডাউনের মধ্যেও প্রাণ ফিরে পেল দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পৌর মার্কেটের দোকানপাট। অন্যদিক উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের বাজারগুলোতে চলছে উৎসব মুখর পরিবেশ। দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর সরকারি ঘোষণায় রবিবার থেকে খুলতে শুরু করেছে সব দোকানপাট ও শপিং মল।

উপজেলা প্রশাসন বাজারে স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপারে প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। রয়েছে তাদের তদারকি ও নজরদারি। চলমান লকডাউনের মধ্যে দোকানপাট, বিপণী বিতান খোলার প্রথম দিনেই সর্বসাধারণের উপচে পরা ভিড় দেখা গেছে পৌরসভার ছোট-বড় বিভিন্ন মার্কেট ও শপিং মলগুলোতে। ব্যবসায়ী ও মার্কেট কর্তৃপক্ষ কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের ব্যবসায়ীক কার্যক্রম শুরুর চেষ্টা করলেও সাধারণ মানুষের ভিড়ে সবই যেন উপেক্ষিত হচ্ছে।

পরিস্থিতি দেখে মনে হয়,ব্যবসায়ীরা দোকান খোলার জন্য যতটা না উদগ্রীব ছিলেন তার চেয়ে বেশি অপেক্ষায় ছিলেন ক্রেতাসাধারণরা। সরেজমিনে দেখা গেছে, চলমান দ্বিতীয় ধাপের লকডাউনের মধ্যে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এমন ঘোষণার দ্বিতীয় দিনেও সব ব্যবসায়ীই তাদের স্ব স্ব দোকান খুলে ব্যবসায়ীক কার্যক্রম শুরু করেন। টানা ১২দিন বন্ধ থাকার পর শপিং মলগুলোতে হুড়মুড়য়ি আসছেন ক্রেতারা।

দোকান খোলার শুরুতেই স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কাহীন অকেজো জীবাণুনাশক টানেল ও দূরত্ব শূন্যের কোঠায় স্বাস্থ্যবিধি মানা আর না মানার দ্বন্দ্বে ক্রেতা-বিক্রেতা।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল কাদের এর সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, করোনার বিস্তার রোধে জনগনকে সচেতন করতে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চাকানো হচ্ছে। তাই শুধুমাত্র আইন প্রয়োগ করে বা আইনের আওতায় নয় সমগ্র উপজেলাবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কোভিট ১৯ মোকাবিলা করতে আন্তরিকতার সাথে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ প্রদান করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য