ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে ৩০ কেজি ওজনের পাথরের মূর্তি উদ্ধার

রংপুর বিভাগ

ঠাকুরগাঁও সংবাদাতাঃ হরিপুর উপজেলার ২ নং আমগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের জামুন কুমারপাড়া গ্রামের শ্রী যোগেন পাল( ৭০) পিতা কৃষান পালের বাড়ীর পূর্বপাশ্বে অগন খোয়া পুকুরে মাটি খনন কালে বিষ্ণু মূর্তিটি পাওয়া যায় ।
গত ১৪-৪-২০২১ ইং তারিখে পুকুরটিতে কিছু শ্রমিক খননের সময় পেলেও কিন্তু শ্রমিক গুলো সাধারণ পাথর মনে করে যামুন ইট ভাটার মাটির বহনের মহেন্দ্র টলিতে তুলে দেয় ।

১৫ -৪-২০২১ তারিখে সকালে জামুন ইট ভাটার শ্রমিকের নিকট বিষয়টি অবগত হয়ে, ধোয়াঁ নির্দেশ দিলে পানি দিয়ে ঝকঝকে করে পরিষ্কার করলে, অতিপ্রাচীন কালের বিষ্ণু মূর্তি দেখতে পায় এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান পাভেল তালুকদার কে বিষয়টিহ অবহিত করেন। , চেয়ারম্যান বিষয়টি তক্ষণাৎ মাটি খননের সময় বিষ্ণু মূর্তি পাওয়ার বিষয়টি হরিপুর থানা পুলিশ অবহিত করে ।

জামুন ইট ভাটার মালিক বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ হবিবর রহমান ও ২ নং আমগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ পাভেল তালুকদার সহ বিষ্ণু মূর্তি নিয়ে এসে হরিপুর থানা জমা দেন।

স্থানীয় লোকজন জানায় যে,ইটভাটার মাটির জন্য খনন কালে মূর্তিটি অগন খোয়া পুকুরে পায় এবং মহেন্দ্র টলিতে ইটভাটার মাটির সাথে চলে আসে জামুন ইট ভাটায় চলে আসে।

হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম আরওঙ্গজেব জানান, বিষ্ণু মূর্তিটি বর্তমানে থানার হেফাজতে রয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কষ্টি পাথরের মূর্তি বলে ধারণা করা হচ্ছে, অতিপ্রাচীন কালে রাজা বাদশার আমলের। সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষদের ধর্মীয় কাজে ব্যবহার হতো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য