প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যু, গান স্যালুট প্রদর্শন

আন্তর্জাতিক

গান স্যালুটের মধ্য দিয়ে শেষবারের মতো আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মান জানানো হয়েছে ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপকে। আজ শনিবার (১০ এপ্রিল) ব্রিটেনের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় পুরো যুক্তরাজ্য জুড়ে, জিব্রাল্টার এবং সমুদ্রে যুদ্ধজাহাজ থেকে এই স্যালুট জানানো হয়। এ সময় মোট ৪১ বার গুলি চালানোর হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, গান ফায়ারের জন্য ব্রিটিশ সেনাবাহিনী বিশ্বযুদ্ধের এক-যুগের কিউএফ ১৩ পাউন্ডারের মাঠ বন্দুকগুলো ব্যবহার করেছেন। এসব বন্দুক তার রাজ্যাভিষেকের সময় ব্যবহৃত হয়েছিল। পাশাপাশি রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও প্রিন্স ফিলিপের বিবাহকেও এ সম্মান জানান সেনারা। টানা ১০ মিনিট ধরে স্যালুট জানানো হয়।

এ ছাড়া রাজকীয় নৌবাহিনীর জাহাজ এইচএমএস ডায়মন্ড এবং এইচএমএস মনট্রোসও প্রিন্স ফিলিপের সম্মানে গুলিবর্ষণ করেছে। তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নৌবাহিনীর অফিসার হিসেবে কাজ করেছিলেন।

এর আগে গতকাল শুক্রবার ব্রিটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ ৯৯ বছর বয়সে মারা যান। ব্রিটিশ ইতিহাসের দীর্ঘতম রাজকীয় সঙ্গী ছিলেন তিনি। তার মৃত্যুতে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, অত্যন্ত দুঃখের সাথে ডিউকের মৃত্যুর সংবাদ পেয়েছেন তিনি।

ডাউনিং স্ট্রিটে এক বক্তব্যে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন “অসংখ্য তরুণদের জীবনকে অনুপ্রাণিত করেছিলেন প্রিন্স ফিলিপ। তিনি রাজপরিবার ও রাজতন্ত্রকে পরিচালনা করতে সহায়তা করেছেন তিনি।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিটিশ রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ৯৯ বছর বয়সী ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপকে লন্ডনের সপ্তম কিং এডওয়ার্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

১৯২১ সালে গ্রীক দ্বীপ কর্পুতে জন্মগ্রহণ করা ফিলিপ ছিলেন গ্রীক রাজ পরিবারের সদস্য ফিলিপ, এডিনবার্গের ডিউক নামেও পরিচিত ছিলেন প্রিন্স ফিলিপ, ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে বিয়ে করেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য