কোভিড চিকিৎসায় হেপাটাইটিস সি-র ওষুধ অনুমোদনের আবেদন ভারতে

আন্তর্জাতিক

কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসার জন্য হেপাটাইটিস সি-র একটি ‍ওষুধ ব্যবহারের অনুমোদন চেয়েছে ভারতের ক্যাডিলা হেলথকেয়ার লিমিটেড।

শেষ পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ওই ওষুধটি ব্যবহার করে আশাব্যঞ্জক অন্তর্বর্তী ফল পাওয়া গেছে বলে ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানিটি সোমবার জানিয়েছে।

স্টক এক্সচেঞ্জগুলোকে দেওয়া এক বিবৃতিতে ক্যাডিলা বলেছে, প্রাথমিক পর্যায়ে হেপাটাইটিস সি-র ওষুধটির একটি একক ডোজ কোভিড-১৯ রোগীদের দ্রুত সুস্থ করে তুলতে ও রোগের পরবর্তী পর্যায়ে দেখা দেওয়া জটিলতা এড়াতে সহায়তা করতে পারে।

তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিকাল ট্রায়ালের তথ্যের্ উদ্ধৃতি দিয়ে কোম্পানিটি বলেছে, এই ওষুধটি দিয়ে চিকিৎসা দেওয়া প্রায় ৯১ শতাংশ রোগী মানসম্পন্ন আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় সাত দিনের মধ্যে কোভিড-১৯ মুক্ত হয়েছেন আর যাদের প্রচলিত চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে এ হার ৭৯ শতাংশ ছিল।

এই ওষুধটি পেগিলেইটেড ইন্টারফেরন আলফা-টুবি নামে পরিচিত এবং ক্যাডিলা এটিকে ‘পেগিহ্যাপ’ নামকরণ করেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

১০ বছর আগে ভারতের বাজারে আসা এ ওষুধটি হেপাটাইটিস সি-জনিত লিভার রোগের চিকিৎসার জন্য অনুমোদন পেয়েছিল।

ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে দৈনিক শনাক্তের নতুন রেকর্ড হয়েছে, তার মধ্যেই এ খবর এল। পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে এক লাখ তিন হাজার ৫৫৮ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে সোমবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যে দেখা গেছে। এর আগে দেশটিতে একদিনে এতো রোগী আর শনাক্ত হয়নি।

মোট করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর তৃতীয় স্থানে আছে ভারত; আর মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও মেক্সিকোর পর চতুর্থ স্থানে আছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য