গাইবান্ধায় নির্মাণাধীন ঘর ভাঙচুর, মারপিটে আহত ৩

রংপুর বিভাগ

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে জমি-জমা সংক্রান্ত জেরে রাতের আধারে প্রতিপক্ষ মুনজুরুল মোরশেদ এবং আবু তাহেরদের বিরুদ্ধে নির্মাণাধীন ঘর ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় এজাহার দায়ের। এ ঘটনায় তাদের হামলায় ৩জন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

থানার এজাহার সুত্রে জানা যায়, উপজেলার নাকাই ইউনিয়নের কুমারগাড়ী গ্রামের দুলু প্রধানের ছেলে কালাম প্রধানের সাথে একই গ্রামের আব্দুল করিম মিয়ার ছেলে মুনজুরুল মোরশেদ এবং রমজান আলীর ছেলে আবু তাহের প্রধান, বক্কর প্রধান, বাবু প্রধান ও মোফ্ফারদের গংদরে সহিত দীর্ঘদিন থেকে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল।

বিরোধপুর্ণ জমি নিয়ে ২০২০ সালে আদালতে মামলা হয়। সম্প্রতি কালাম প্রধান এ মামলার রায় প্রাপ্ত হয় বলে এজাহারে উল্লেখ করেন। রায়ের পর তিনি ঘর নির্মাণের কাজ শুরু করলে গত সোমবার (২৯ মার্চ) গভীর রাতে মুনজুরুল মোরশেদ এবং আবু তাহের গংরা তাদের অন্যান্য সহযোগীরাসহ নির্মাণাধীন ঘর ভাংচুর করতে থাকে। এরই এক পর্যায়ে ভাংচুরের শব্দ শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘর ভাঙতে নিষেধ করলে প্রতিপক্ষের মারপিটে দুলু প্রধানসহ দুইজন গুরুতর আহত হয়।

এসময় দুলুর চিৎকারে আশেপাশের বাড়ীর লোকজন ঘটনাস্থলে আসলে মনজুরুল মোরশেদ এবং আবু তাহেরের লোকজন পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। বর্তমানে আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় কালাম প্রধান বাদী হয়ে মনজুরুল মোরশেদ এবং আবু তাহেরসহ এজাহার নামীয় ৯জন ছাড়াও অজ্ঞাতনাম আরো কয়েকজনকে বিবাদী করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় এজাহার দায়ের করেন।

বুধবার (৩১ মার্চ) দুপুরে থানার এসআই তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, এজাহারের ভিত্তিতে ভাংচুরের ঘটনাস্থল পরির্দশন করা হয়। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য