সংক্রমণের গতি কমে যাওয়ার পাশাপাশি টিকাদান করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির যে উচ্ছ্বাস তৈরি করেছে, তাতে খানিকটা রাশ টানলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার প্রধান অ্যান্ড্রিয়ে অ্যামেন।

তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাসকে দীর্ঘকাল ধরে মোকাবেলার প্রস্তুতি বিশ্ববাসীর রাখতে হবে।

ইউরোপীয় সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের প্রধান অ্যামেন এক সাক্ষাৎকারে এই সতর্কবার্তা দেন বলে যুক্তরাজ্যের ডেইলি মেইল জানিয়েছে।

এক বছরে ১০ কোটির বেশি মানুষকে আক্রান্ত আর ২৩ লাখের বেশি প্রাণহানি ঘটিয়ে এখন কোভিড-১৯ মহামারীর প্রকোপ কমার ইঙ্গিত দেখা যাচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সম্প্রতি গত চার সপ্তাহ ধরে সংক্রমণের হারে এবং দুই সপ্তাহ ধরে মৃত্যুর হারে নিম্নগতির তথ্য তুলে ধরে বলেছিল, এই প্রবণতা ‘উৎসাহব্যঞ্জক’।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যে আশা জাগানিয়া চিত্র

এর মধ্যে বিশ্বের নানা দেশে টিকাদানও শুরু হওয়ায় নতুন এই ভাইরাস প্রতিরোধের লড়াইয়ে জয়ের আশা জেগেছে বিশ্ববাসীর মনে।

সেই সময়ে সবাইকে সতর্ক করে ইইউর রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার প্রধান বললেন, “মনে হচ্ছে, এটা (করোনাভাইরাস) থেকেই যাবে। এটা মানবদেহে বেশ ভালো করেই বাসা বেঁধে নিতে পেরেছে।”

তিনি সেই সঙ্গে বলেন, “এটাই প্রথম ভাইরাস নয়, যেটা আমাদের সঙ্গে থেকে যাচ্ছে। ভাইরাসের ক্ষেত্রে এটা ব্যতিক্রমও নয়।”

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে সার্স জাতীয় এই ভাইরাস মানবদেহে সংক্রমিত হওয়ার পর দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ে দেশে দেশে। আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে।

পরে ভাইরাসটি নতুন করোনাভাইরাস হিসেবে পরিচিতি পায়, আর এর সংক্রমণের ফলে সৃষ্ট রোগ নাম পায় কোভিড-১৯।

শনিবার পর্যন্ত বিশ্বে ১০ কোটি ৮১ লাখেরও বেশি মানুষের দেহে সংক্রমণ ধরা পড়েছে, আর মৃত্যু ঘটেছে ২৩ লাখ ৮০ হাজার জনের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য