সৌদি আরবের আভা বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের ইরান সমর্খিত গোষ্ঠী হুতি আন্দোলন।

বুধবার তাদের এ হামলার কারণে বেসামরিক একটি এয়ারক্রাফটে আগুনও ধরে যায়।

সৌদি আরবের দক্ষিণে অবস্থিত বিমানবন্দরটিতে হামলায় চারটি ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে বলে হুতিদের মুখপাত্র ইয়াহইয়া সারিয়ার বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ইয়েমেনের বিশাল অংশের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখা হুতিরা সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে প্রায়ই ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালালেও রিয়াদ তার বেশিরভাগই প্রতিহত করার দাবি করে আসছে।

ইয়েমেন সীমান্ত থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আভা বিমানবন্দরে আগেও হুতিরা ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

“আভা বিমানবন্দরকে লক্ষ্যবস্তু বানানোর চেষ্টা যুদ্ধাপরাধ; এটি বেসামরিক যাত্রীদের জীবনকে বিপদে ফেলছে,” পরে এক বিবৃতিতে বলেছে হুতিদের বিরুদ্ধে লড়াইরত সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট।

ড্রোন হামলায় আগুন ধরে যাওয়ার সময় উড়োজাহাজটি ‘গ্রাউন্ডেড’ থাকায় কোনো আরোহী ছিল না; অল্প সময়ের মধ্যে ওই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে বলেও বিবৃতিতে জানিয়েছে তারা।

সারিয়া বলেছেন, ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলা ও অন্যান্য পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় আভা বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

এর আগে বুধবার পৃথক এক বিবৃতিতে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট সৌদি আরবে বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে চালানো হুতিদের দুটি ড্রোনকে ধ্বংস করা হয়েছে বলে দাবি করেছে।

রোববার এবং সোমবারও হুতিদের ড্রোন হামলা প্রতিহত করা হয়, বলেছে তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য