নীলফামারী’র সৈয়দপুরে অবৈধ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযান, জরিমানা ৩৬ লাখ

রংপুর

মো. জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা: হাইকোর্টের নির্দেশে আবারো শুরু হয়েছে অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে অভিযান।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারী) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এ উচ্ছেদ অভিযানে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৬টি অবৈধ ইটভাটা। পাশাপশি এসব ইটভাটা থেকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

ইটভাটাগুলো হলো- সেলিনা বেগমের মালিকানাধীন মেসার্স এমবিসি ব্রিকস, জোবাইদুল ইসলামের মেসার্স ডিবিএল ব্রিকস, আব্দুর রাজ্জাকের মেসার্স এমএইচই ব্রিকস, মো. নুর উ্িদনের মেসার্স সিএন ব্রিকস, জিকরুল হকের মেসার্স এমজেএইচ ব্রিকস, মোজাম্মেল হকের মেসার্স থ্রি স্টার ব্রিকস।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট রেজিনা আকতার ও রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মেজবাবুল আলমের নেতৃত্বে¡ অভিযানে অংশ নেয় পুুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস, আনসার ভিডিপি ও গ্রাম পুলিশ।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট রেজিনা আকতার বলেন, ২০১৩ সাল থেকে নীলফামারী জেলার ৬০টি ইটভাটার মধ্যে ৭টি ইটভাটা সনাতন পদ্ধতিতে চলছে। যা মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করেছে। এসব ভাটা আংশিক গুড়িয়ে ও জরিমানা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে নিজেরাই তা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মেজবাবুল আলম বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী অবৈধ সব ইটভাটাতেই অভিযান চালানো হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব ইটভাটায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে না। তাছাড়া পরিবেশ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনের কোন লাইসেন্স নেই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য